সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৭শে শ্রাবণ ১৪২৭ | ১১ আগস্ট ২০২০

কেড়ে নেয়া হচ্ছে বোল্টের স্বর্ণপদক!

সোমবার, আগস্ট ২২, ২০১৬

1622655081_1471847797.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
রিও অলিম্পিকে ‘ট্রিপল-ট্রিপল’ স্বর্ণ জয়ের ইতিহাস গড়া জ্যামাইকান অ্যাথলেট উসাইন বোল্টের জন্য বড় দুঃসংবাদ। কেড়ে নেয়া হতে পারে বজ্রবিদ্যুৎ বোল্টের অলিম্পিক স্বর্ণ!

২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে দলগত ইভেন্টে তার সতীর্থ ছিলেন আরেক জ্যামাইকান নেস্তা কার্টার। সম্প্রতি এই স্প্রিন্টারের বিরুদ্ধে ডোপিংয়ের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ওই ইভেন্টে পাওয়া দলের চারজনের স্বর্ণপদকই কেড়ে নেয়া হবে। বোল্টও বাদ যাবেন না।

ইতিমধ্যে ডোপিংয়ের অভিযোগে কার্টারের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাতে স্যাম্পল ‘এ’ পরীক্ষায় নিজেকে নির্দোষ প্রমাণিত করলেও আবারও নতুন করে তার নমুনা পরীক্ষা করা হবে। স্যাম্পল ‘বি’তে যদি নিষিদ্ধ ড্রাগ ধরা পড়ে, তাহলে বেইজিং অলিম্পিকে পাওয়া স্বর্ণ কেড়ে নেবে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি)।

সেই সঙ্গে নির্বাসিত হতে পারেন কার্টার। আর এটা হলে সর্বনাশ হবে বোল্টেরও। এর আগে ১০০ মিটারের পর ২০০ মিটার স্প্রিন্টেও টানা তিন অলিম্পিকে স্বর্ণ জয়ের অনন্য রেকর্ড গড়েন ৩০ বছর বয়সী গতিদানব বোল্ট। ৪*১০০ মিটার রিলের ইভেন্টে স্বর্ণপদক হাতে তুলেই তার ‘ট্রিপল-ট্রিপল’ স্বপ্নটাও পূরণ হয়ে যায়।

বাংলাদেশ সময় শনিবার সকালে অবিশ্বাস্য এ কীর্তিটিরও সাক্ষী হয় ক্রীড়াবিশ্ব। অনন্য কীর্তি গড়ার পর তাকে এই অপ্রত্যাশিত খবর শুনতে হয়েছে।

২০০৮ বেইজিং ও ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে ১০০, ২০০ ও ৪*১০০ মিটার রিলেতে সেরার আসনে বসেছিলেন কালজয়ী এ ক্রীড়াবিদ। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কিন্তু বোল্টের ২০০৮ সালের স্বর্ণ খোয়া গেলে  ‘ট্রিপল-ট্রিপল’ হবে কেমন করে?

ঢাকা, সোমবার, আগস্ট ২২, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // আর কে এই লেখাটি ৩০৯১৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন