সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৯শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৩ নভেম্বর ২০১৮

লোকাল বাসে বাড়ি ফিরতে হলো চ্যাম্পিয়ন মেয়েদের

বুধবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৬

1459730513_1473246783.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
সম্প্রতি ফুটবলে এশিয়ার ৮ দলের মধ্যে বাংলাদেশকে তুলে ইতিহাস গড়েছে  অনুর্ধ্ব-১৬ দলের নারী ফুটবলাররা। তারা সবাই ময়মনসিংহ জেলার কলসুন্দর গ্রামের কিশোরী। ইরান-নেপাল-চাইনিজ তাইপে সহ গ্রুপের সকল দলকে বিশাল ব্যাবধানে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই আগামী বছর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এশিয়ান ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্বে উঠেছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশকে এই বিশাল সম্মান এনে দিয়েছে কলসুন্দর গ্রামের হতদরিদ্র পরিবারের এই ছোট মেয়েরা। আপাতত খেলা শেষ হওয়ায় এবং আসন্ন ঈদের ছুটিতে তারা বাড়ি ফিরেছে।

তবে যাদের জন্য দেশ পেয়েছে এমন সম্মান, সেই মেয়েদেরই গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ ফিরতে হয়েছে লোকাল বাসে করে। তাদের প্রায় সকলের পরিবার অত্যন্ত গরিব হওয়ায় তাদের সাথে কারোরই অভিভাবক ছিলেন না। কৈশরে পাঁ দেয়া এসব মেয়েদের নিজেদেরই বাড়ির পথ ধরতে হয়েছে।

যাদের নিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন এত গর্ব করছে তাদের সাথে ছিলো না বাফুফের কেউই।

লোকাল বাসে বাড়ি ফেরার সময় চরম ভোগান্তির শিকার হতে হয় মারিয়া-সানজিদারা। এমনকি তাদের একাকী পেয়ে অনেকে অপমান করেছে এছাড়াও অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ করেছে কেউ কেউ। দেশের জন্য এত বড় সম্মান এনে দেয়ার পরও তাদের এমন অবস্থা এবং অসম্মান করার কারণে হতবাক এবং ক্ষুদ্ধ তারা।

নিজেদের অবস্থা বর্ণনা করতে গিয়ে একটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলের প্রতিবেদনে তাদের একজন কান্নাভেজা গলায় বলেন, দেশের হয়ে এতসুন্দর একটা রেজাল্ট করলাম আমরা। দেশের হয়ে খেললাম কিন্তু আজকে এমনভাবে আমরা বাড়ি যাচ্ছি খুব কষ্ট লাগতেছে।

অন্য আরেকজন বলেন, বাসে অনেক যাত্রী আমাদের খুব অশ্লিল ভাষায় বকা দিছে। পাশে থাকা অন্য যাত্রীরা তাদের সমর্থন দিলে তাদেরকেও অপমান করে ঐ যাত্রীরা।

ঈদের ছুটি উপলক্ষে ময়মনসিংহের গ্রামের বাড়ি ফিরতে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে আটটায় রাজধানীর মহাখালী থেকে নিলয় নামের একটি লােকাল বাসে ওঠে তারা। তারা যখন গন্তব্যে পৌঁছায় তখন বেলা তিনটা। তাদের সাথে অভিভাবক বা বাফুফের কেউই ছিলো না।

তাদের অভিভাবকের সাথে কথা বললে তারা জানান, আমরা আমাদের ছােট ছোট মেয়েদের বাফুফের ভরসায় ছেড়ে দিয়েছি। কিন্তু তাদের এই আচরণে আমরা খুব কষ্ট পেয়েছি।

দেশের ফুটবল থেকে যখন মানুষ মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। তখনই বেশ আশা জাগিয়েছে কলসুন্দরের এই নারী ফুটবলাররা। কিন্তু তাদের প্রতি বাফুফের এমন আচরণ মোটেও যুক্তিযুক্ত নয়।


ঢাকা, বুধবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ১৫৭৫৬৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন