সর্বশেষ
রবিবার ৮ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এখন শত কোটির মালিক সেই তরুণী, অ্যাম্বাসেডর সেই কোহলিই

শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৬

398129590_1474119569.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
বয়স ২৮ বছর। এই বয়সের একটা মেয়ে আগেকার দিনে হলে বিয়ে-থা করে সংসারী। তবে, সেসবের চিন্তা করার কোনও সময়ই নেই ভারতীয় তরুণী অঞ্জনা রেড্ডির। ব্যবসায়ী পরিবারের এই কন্যা এখন ৬১ কোটি টাকার ব্যবসা সামলাচ্ছেন। এই আর্থিক বছরের শেষেই এই পরিমাণটা ১০০ কোটি ছাড়াবে। না, পারিবারিক নয়। এই গোটা ব্যবসাই তার একা হাতে তৈরি।

ইউনিভার্সাল স্পোর্টসবিজ প্রাইভেট লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা অঞ্জনা। জনপ্রিয় ব্র্যান্ড Collectabillia, Imara, Wrogn - এসবই এই কোম্পানির নিজস্ব ব্র্যান্ড। ২০১১ সালে গ্র্যাজুয়েশন করার পর স্নাতকোত্তর পড়তে আমেরিকা চলে যান অঞ্জনা। পারিবারিক ব্যবসায় যোগ না দিয়ে তার বরাবরের ইচ্ছে ছিল একজন সফল উদ্যোগপতি হয়ে ওঠা। কলেজের ফাইনাল ইয়ারেই তিনি কালেক্টাবিলিয়া কোম্পানি তৈরি করেন।

অঞ্জনার পরিবার একসময় ডেকান চার্জার্সের মালিক ছিল। আর তিনি যেখানে পড়াশোনা করেন অর্থাত্‍‌ আমেরিকাতেও খেলাধুলো ব্র্যান্ড বিজনেসের অন্যতম মুখ। এই সবকিছু মিলিয়েই খেলাধুলোর সঙ্গে জড়িয়ে ব্যবসা করার চিন্তাভাবনা তার মাথায় আসে। শচিন টেন্ডুলকার থেকে শুরু করে ইংলিশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের খেলোয়াড়দের জন্য এজেন্সিগুলিকে ক্রীড়াসামগ্রী দেওয়া শুরু করেন অঞ্জনা। সেই শুরু। ২০১২-তে কালেক্টাবিলিয়ার বিনিয়োগকারীদের মধ্যে একজন ছিলেন শচিন।

Image result for anjana reddy

তবে, সেই অধ্যায়টা খুব ভালো না যাওয়ায় তড়িঘড়ি সিদ্ধান্ত বদলান এই ব্যবসায়ী কন্যা। এরপরই তিনি বাজারে আনেন ইমারা ও Wrogn। ব্যবসা যখন টলমল, তখনই ভারতীয় ক্রিকেট স্টার বিরাট কোহলির উপর বাজি ধরার সাহস দেখান অঞ্জনা। এমন একটা সময়ে যখন বিরাট ইংল্যান্ড সিরিজে একটা কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলো। অনেকেই বলতে শুরু করেছিলেন বিরাটের খেলা শেষ। এই অবস্থায় একটু এদিক-ওদিক হলেই ব্যবসা লাটে উঠত অঞ্জনার। তবে, তিনি ভরসা রেখেছিলেন বিরাট ও তার সিদ্ধান্তের উপর। ফলটা কী হয়েছে আজ সবাই জানে। ব্র্যান্ড Wrogn সাফল্যের শিখরে। Wrogn-এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর বিরাটও।
Image result for anjana reddy

দিনে ১৮ ঘণ্টাই ব্যস্ত ভারতের বেঙ্গালুরুর এই মেয়ে। তার ব্র্যান্ড যায় ৭৩টি শপার স্টপ স্টোর-সহ মায়ান্ত্রার মতো ই-কমার্স সাইটেও। নিজেদের ছটি অফলাইন স্টোর রয়েছে USPL-এর। সামনের বছরের মধ্যে আরও ১০০টি স্টোর খোলার পরিকল্পনা রয়েছে।

ঢাকা, শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ১৯২৩০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন