সর্বশেষ
শুক্রবার ৬ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফেসবুকে প্রেম, প্রেমিকার টানে বাংলাদেশে ভারতীয় যুবক

শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৬

896788777_1474734600.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
প্রেম কিনা করতে পারে। লাইলি-মঝনু থেকে শিরি-ফরহাদ সবাই প্রেমের কারনেই পরিচিত। আবারো প্রমাণ হলো কোন বাঁধাই প্রেমকে দমিয়ে রাখতে পারেনা।

যশোরের এক মেয়ের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে সীমান্তের কাঁটাতার পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছেন এক ভারতীয় যুবক। প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে এসে ওই যুবক বাংলাদেশের পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন।    

শনিবার বিকেলের দিকে যশোরের একটি হোটেল থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার সঙ্গে প্রেমিকা ছিলেন বলে জানায় পুলিশ।  

প্রেমিক ভারতের নয়া দিল্লির ডালকাবাদ এক্সটার্নাল ২৪ নম্বর গলির আহম্মেদ আলীর ছেলে আহম্মেদ রেজা (৩০) ও যশোর শহরের পুলিশ লাইন টালিখোলা এলাকায় বসবাসকারী পুলিশ সদস্য দীপক বিশ্বাসের মেয়ে ও আনসার সদস্য সুনির্মল বিশ্বাসের স্ত্রী মুক্তা বিশ্বাস।

মুক্তা বিশ্বাস জানান, বছর দেড়েক আগে আহম্মেদ রেজার সঙ্গে তার ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয়। একপর্যায়ে বন্ধুত্ব হয়। তিনি বাংলাদেশে এসে দেখা করেতে চান। সে কারণে শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে আহমেদ রেজা বোনাপোল আন্তর্জাতিক বন্দর দিয়ে যশোরে আসেন এবং আরএস নামক একটি আবাসিক হোটেলে উঠেন। শনিবার দুপুরে তিনি রেজাকে নিতে হোটেলে যান। বিকালের দিকে পুলিশ গিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

দিল্লি থেকে রেজা যশোরে আসেন এবং মুক্তা তাকে আরএস হোটেলে ওঠান। শনিবার মুক্তা ওই হোটেলে যান। এরপর তারা দীর্ঘক্ষণ একটি রুমে কাটান।

পুলিশ জানায়, আহম্মেদ রেজা দিল্লির ‘ভন ইন্টারন্যাশনাল’ নামক একটি কোম্পানির (এক্সপোর্ট ইনপোর্ট এজেন্সি) মার্কেটিং বিভাগে চাকরি করেন। তিনি বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারেন না। ইংলিশও ভালো বোঝেন না। যেটুকু কথা হয়েছে মুক্তার মাধ্যম দিয়ে হিন্দিতে।

আপনি হিন্দি কীভাবে শিখেছেন এমন প্রশ্নের জবাবে মৃদু হেসে মুক্তা বিশ্বাস বলেন, টেলিভিশনের হিন্দি সিরিয়াল দেখে হিন্দি শিখেছি।

সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিয়ারত হোসেন জানান, এনএসআইয়ের লোকজন তাদের ধরে পুলিশে দিয়েছে। এই বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবো না। তাদের থানায় নেয়া হয়েছে। এখনো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তদন্ত করে বিষয়টি দেখা হবে।

ঢাকা, শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // ম র এই লেখাটি ১৫১১৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন