সর্বশেষ
শনিবার ৭ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শীতে ত্বককে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখবে যে ৭টি খাবার

রবিবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৬

1057288958_1477204192.png
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
শীত নিয়ে আসে ঠাণ্ডা শুষ্ক বায়ু, কম তাপমাত্রা ও কম আদ্রতা যা ত্বক, ঠোঁট এবং শরীরের অন্যান্য অংশকে নানাভাবে ক্ষতি করে থাকে। শীত ত্বককে শুষ্ক, স্তরপূর্ণ এবং নিস্তেজ করে তোলে। একটি সঠিক ত্বকের যত্নের রুটিন পুরো শীতকাল অনুসরণ করলে ত্বককে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখা সম্ভব। খাদ্যের শোষ সূর্যের অতি বেগুনী রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করতে সাহায্য করে।

পুরো এই শীতের মৌসুমে এসব খাদ্য ত্বককে সুন্দর, স্বাস্থ্যসম্মত এবং উজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করবে। জেনে নেয়া যাক সেসব খাদ্যগুলো যা এই শীতের মৌসুমে ত্বককে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করবে।

১। গাজর
গাজরে ভিটামিন 'এ' থাকে। প্রতিদিন এক গ্লাস করে গাজরের জুস খেলে ত্বক ভিতর থেকে হেলদি থাকবে। এছাড়া গাঁজরের ফেইস প্যাক বানানো সম্ভব। ২ টেবিল চামচ গাজর বাটা, ১ টেবিল চামচ মধু, দুধের ননী ও অলিভ ওয়েল মিশিয়ে একটি ফেইস প্যাক করে মুখে লাগাতে হবে। প্যাকটি শুকিয়ে আসলে পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। সাপ্তাহে ১ থেকে ২ বার এই প্যাকটি ব্যবহারে আপনার ত্বক উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

২। কাজুবাদাম
গোসলের পূর্বে কাজুবাদামের তেল লাগিয়ে গোসল করলে ত্বকের উজ্জলতা বাড়বে। এ ছারাও কাজুবাদামের ফেইস প্যাক তৈরি করে ব্যবহার করতে পারেন। আগের দিন রাতে এক মুঠো কাজুবাদাম পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন সকালে বাদামের খোসা ছাড়িয়ে তা চূর্ণ করে নিন। তার পর কিছু গরুর দুধ বা দই যোগ করে একটি পেস্ট তৈরি করুণ। এই প্যাকটি সপ্তাহে ১-২ বার ব্যবহার করুণ।

৪। অলিভ অয়েল
অলিভ ওয়েল আপনার ত্বকের জন্য ভাল বিশেষত শীতে যখন আপনার ত্বক শুষ্ক হয়ে আসে। এতে ভিটামিন 'এ' এবং ভিটামিন 'ই' এর পাশাপাশি অন্যান্য খনিজ পদার্থ আছে যা আপনার ত্বকের নমনীয়তা এবং স্নিগ্ধতা বজায় রাখে।

গোসলের পূর্বে অলিভ ওয়েলকে হালকা গরম করে মুখে, বাহুতে, কবজিতে এবং হাঁটুতে হালকা ভাবে মাসাজ করতে হবে। এরপর হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে গোসল করে নিতে হবে। ভালোভাবে ত্বককে শুকিয়ে নিতে হবে। দেখবেন ত্বক নরম ও মসৃণ দেখাবে।

৫। আভাকাডো
আভাকাডোতে ভিটামিন 'এ' ও 'সি' এবং 'ই' তিনটি খনিজই একসাথে উপস্থিত থাকে। একটি পাকা আভাকাডোকে  চামচ দিয়ে কুরিয়ে বের করে নিন। তাতে এক চামচ মধু এবং অলিভ ওয়েল দিয়ে তা ফেইস প্যাক হিসেবে লাগালে ত্বকের মসৃণতা বজায় থাকবে।

৬। জাম্বুরা
জাম্বুরাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন 'সি' থাকে যা আপনার ত্বককে সতেজ রাখে। প্রতিদিন এক গ্লাস করে জাম্বুরার জুস পান করতে হবে পুরো শীতকাল। এছাড়া জাম্বুরা দিয়ে ফেইস প্যাক তৈরি করা সম্ভব। নিচে ফেইস প্যাক তৈরি উপকরণ ও প্রণালী দেখে নিন-

উপকরণ:
# একটি জাম্বুরার অর্ধেক রস
# এক টেবিল চামচ মধু এবং
# ওটমিল পাউডার

প্রনালি:
সবগুলো উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে একটি ফেইস প্যাক বানাতে হবে। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। শুকিয়ে আসলে তা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এই ফেইস প্যাকটি ব্যাবহারে আপনার ত্বকের সজীবতা বজায় থাকবে।

৭। পালংশাক
ত্বকের জন্য পালংশাক অনেক উপকারি। ত্বকের যত্নে পালংশাকের গুন আপনি কিছুতেই এড়িয়ে যেত পারবেন না! পালং শাক অত্যন্ত পুষ্টিকর। এতে আছে প্রচুর এন্টিঅক্সিডেন্ট। তাজা এবং অল্পসেদ্ধ করে খেলে বেশি এন্টিঅক্সিডেন্ট লাভ করা যায়। এই গাঢ় সবুজ রঙের সব্জিটি আপনার ত্বকের সুস্থ কোষ তৈরিতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এতে উচ্চমানের ভিটামিন 'এ' এবং 'সি' রয়েছে যা স্বাস্থ্য কর ত্বকের জন্য অধিক প্রয়োজনীয়। এ ছাড়াও পালং শাক সূর্যের ক্ষতি থেকে ত্বককে রক্ষা করে করতে সাহায্য করে।

# সামান্য পরিমানে লেবুর রস সাথে কিছু পালংশাক এক সাথে ব্লেন্ডকরে সেবন করুণ। এটি আপনার ত্বককে শুষ্কতা দূর করবে এবং তকে মসৃণতা নিয়ে আসবে।
# এছারাও আপনি সূপ, সালাদ এবং প্রতিদিনের খাবরে পালংশাঁক অন্তর্ভুক্ত রাখতে পারেন যা আপনার ত্বকের সাস্থের জন্য খুব কাজে দিবে।

ঢাকা, রবিবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // জে এইচ এই লেখাটি ১৭৮৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন