সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৫ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অপুর বিয়ে ও সন্তান প্রসঙ্গে প্রমাণ চাইলেন শাকিব খান

শনিবার, নভেম্বর ৫, ২০১৬

280321060_1478353587.jpg
বিনোদন ডেস্ক :
চলতি বছরের এপ্রিল থেকে নিরুদ্দেশ আছেন জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস। অনেক জল ঘোলা হওয়ার পর শোনা যাচ্ছে শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের খবর। এমন গুজবের সত্যতা নেই বলে জানালেন ঢালিউডের এক নম্বর নায়ক।

অপু বিশ্বাসের ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, ভারতের শিলিগুড়িতে অবস্থান করছেন এ নায়িকা। নভেম্বরে দ্বিতীয় সন্তানের মা হতে যাচ্ছেন তিনি। সন্তান নিয়ে ডিসেম্বরে দেশে ফিরবেন এবং ২০১৭ সালের এপ্রিল থেকে সিনেমায় নিয়মিত হবেন।

ওই সূত্রটি দাবি করে যৌথ প্রযোজনার ছবিতে অপুকে বাদ দিয়ে অভিনয় ও ২০০৮ সালে বিয়ে করার পরও স্ত্রী হিসেবে সামাজিক স্বীকৃতি না দেয়ায় রাগ করে ভারত চলে যান অপু। মাস কয়েক ধরে অপু ও তার আত্মীয় পরিচয়দানকারী ব্যক্তিরা বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ফোন করে বিয়ের খবরটি জানালে শাকিব ছুটে যান কলকাতায়। সেখানে অপু তাকে বুবলির সাথে আর অভিনয় না করা ও তাকে বউ হিসেবে সবার সামনে স্বীকার করার শর্ত দেন। অপুর শর্ত মেনে নিয়েছেন শাকিব, তাই ‘প্রিয়া রে’ ও ‘আমার প্রতিজ্ঞা’ থেকে বাদ পড়ছেন বুবলি। তবে ক্যারিয়ারের দোহাই দিয়ে বাকি শর্ত থেকে ফিরে আসতে শাকিব এখনো অপুকে বোঝানোর চেষ্টা করছেন।

তবে মঙ্গলবার দুপুরে শাকিব খান মোবাইল ফোনে বলেন, এসব কথার কোনো সত্যতা নেই। এমনকি কথাগুলো অপু বিশ্বাস বলেছেন, তেমন প্রমাণও কেউ দিতে পারেননি। অপুর ভয়েস রেকর্ড বা অন্য কোনো প্রমাণ দেখাতে পারলেই মন্তব্য করতে রাজি বলে জানান শাকিব খান।

এ সময় শাকিব আরো বলেন, জনপ্রিয় একটি জুটিকে নষ্ট করতে এসব গুজব ছড়ানো হচ্ছে। সাংবাদিকদের উচিত এসব গুজবে কান না দিয়ে সত্যিটা খুঁজে বের করা। হয়তো অপুর ঘনিষ্ঠ সূত্র বলে যারা এসব ছড়াচ্ছে, তারা আমার ও অপুর ভালো চায় না।

ঢালিউডে চালু গুজব থেকে জানা যায়, ২০০৬ সালে ‘কোটি টাকার কাবিন’-এ অভিনয় করতে গিয়ে শাকিব-অপু বিশ্বাসের জুটির প্রেমের সূচনা। ২০০৮ সালে তারা বিয়ে করেন। সাক্ষী ছিলেন প্রয়াত নির্মাতা চাষী নজরুল ইসলাম। বিয়ের চার বছর পর ২০১২ সালে শাকিব-অপুর কোলজুড়ে আসে প্রথম সন্তান। সন্তানটি বর্তমানে বগুড়ায় অপুর মায়ের কাছে বড় হচ্ছে। কেউ জিজ্ঞেস করলে বলেন, ‘বোনের মেয়ে’। ২০১২ সালে সন্তান জন্মদানের সময় অপু বিশ্বাস প্রায় দেড় বছরের বিরতি দিয়ে ফেরেন। তখন বলেন, ‘নিজেকে নতুন রূপে হাজির করার জন্য এ বিরতি’।

সংশ্লিষ্ট সূত্রটি দাবি করেছে শিলিগুড়ি যাওয়ার আগেই অপুর কাছে থাকা কাবিননামা জোর করে নিজের কাছে রেখে দেন শাকিব খান। কিন্তু অপু ইতোমধ্যে নকল সংগ্রহ করেছেন।

এখন দেখার বিষয় নভেম্বরে ঢাকায় ফেরেন কিনা অপু বিশ্বাস। আর তখনই জানা যাবে ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে পাওয়া তথ্যের সত্য-মিথ্যা।

সূত্র : পরিবর্তনডটকম

ঢাকা, শনিবার, নভেম্বর ৫, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // এই লেখাটি ৩৯২২৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন