সর্বশেষ
বুধবার ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শীতে সপ্তাহে ৩দিন শ্যাম্পু করতে হবে

শনিবার, নভেম্বর ১২, ২০১৬

978365731_1478924318.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
শীতের সময় অনেকে আলসেমি করে চুল ধুতে চান না। এতে চুলের ক্ষতি হয়, খুশকি বাড়ে। এই সময়ে চুলের দরকার বাড়তি যত্ন। তাই নিয়মিত চুল ধোঁয়ার পাশাপাশি সপ্তাহে ৩ দিন শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। আজ দেয়া শীতকালে চুলের কিভাবে বাড়তি যত্ন নিবেন।

শীতকালে চুলে একটু বাড়তি শুষ্কতা ও রুক্ষতা আসে। অনেকের অভিযোগ থাকে, আমার চুলের আগা ফেটে যাচ্ছে অথবা চুল ভেঙে যাচ্ছে। এগুলো এ সময় বেশি হয়। তাই শীতের আগেই আপনারা একটা হেয়ার কাট নিয়ে নিতে হবে। চুলকে ট্রিম করবেন। এতে শীতে একটা নতুন লুকও আসবে। সঙ্গে সঙ্গে চুল স্বাস্থ্যকর থাকল। বাইরে বের হলে একটি হালকা কাপড় দিয়ে মাথাকে স্কার্ফ, আর ছেলেরা যদি গেঞ্জি কাপড়ের হুডি ব্যবহার করে, তাহলে চুল সুরক্ষিত থাকল।

চুলের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। শীতে গোসলের প্রতি একটি ভীতি-ভাব থাকে। এগুলো থেকে চুলে খুশকি, উকুন সব হয়। সপ্তাহে তিন দিন তো শ্যাম্পু করতেই হবে। এছাড়া চুলের ধরন অনুযায়ী ত্বকের মতো চুলেও ময়েশ্চারাইজার করা প্রয়োজন। যাকে বলা হয় কন্ডিশনার। চুল ধোয়ার আগে ২০ মিনিট কোনো প্রাকৃতিক তেল দিয়ে শ্যাম্পু করি, এটি মাথার ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখবে।

তাছাড়া চুল ধোয়ার পর আমরা যদি একটি কন্ডিশনার বা হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করি এবং সেটি চুলে গোড়ায় না দিয়ে এক সেন্টিমিটার দূরে ব্যব্হার করে তিন-চার মিনিট পরে ধুয়ে ফেলি, এটি ভালো কাজ করে।

খুশকি যাদের আগে থেকেই আছে, তাদের এই সময়টায় বেশি বেড়ে যায়। খুশকি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার অভাবে হয়। অনেক সময় কন্ডিশনার মাথায় থেকে গেলে খুশকি হয়। কিছু রোগের ক্ষেত্রেও খুশকি বেড়ে যায়। আর যাদের ত্বক শুষ্ক, তাদের ক্ষেত্রে খুশকি আরো বেড়ে যায়। খুশকির ক্ষেত্রে সপ্তাহে তিন দিন যে শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে।

এছাড়া মেডিকেটেড শ্যাম্পু বা কিটোকোনাজল বা জিংকা বা স্যালেনিয়াম সালফাইডযুক্ত কোনো শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। তবে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী। এটি হলো যদি খুশকি বাড়তেই থাকে এর বেলায়। আর যদি খুশকির প্রবণতা আগে থেকেই থাকে, কিন্তু খুশকি তেমন হচ্ছে না, সেক্ষেত্রে প্রতি সপ্তাহে একদিন করে অ্যান্টিডেনড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে।

ঢাকা, শনিবার, নভেম্বর ১২, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ১০৭৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন