সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৫ নভেম্বর ২০১৮

কর্ণফুলী টানেল পরিদর্শন করলেন সেতুমন্ত্রী

রবিবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৬

344929889_1479032340.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আজ রোববার সকালে পতেঙ্গার ওয়েস্ট পয়েন্টে কর্ণফুলী টানেল নির্মাণের সাইট পরিদর্শন করেন। এ সময় কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ প্রকল্পের পরিচালক প্রকৌশলী ইফতেকার কবির উপস্থিত ছিলেন।

পরিদর্শনকালে মন্ত্রী ভূমি অধিগ্রহণ সংক্রান্ত অভিযোগগুলো দ্রুত নিস্পত্তি করতে জেলা প্রশাসন ও প্রকল্প কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। তিনি এ সময় সমবেত জনসাধারণের সাথে মতবিনিময় করেন। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার আবু নাছের এ তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন।

মতবিনিময়কালে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও চীনের রাষ্ট্রপতির যৌথভাবে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের মধ্যদিয়ে কর্ণফুলী টানেলের নির্মাণকাজের সূচনা হয়েছে। তিনি বলেন, জি-টু-জি ভিত্তিতে চীন সরকারের অর্থায়নে কর্ণফুলী টানেলের নির্মাণকাজ যথাসময়ে শেষ করার লক্ষ্যে কাজ করছে সেতু বিভাগ। ইতোমধ্যে কর্ণফুলী টানেল নির্মাণের লক্ষ্যে পরামর্শক নিয়োগের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

প্রায় সাড়ে আট হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে চার লেনবিশিষ্ট কর্ণফুলী টানেল হবে প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার দীর্ঘ। দু'প্রান্তের সংযোগ সড়ক এবং একটি এক কিলোমিটার দীর্ঘ ফ্লাইওভারসহ প্রকল্পের মোট দৈর্ঘ্য প্রায় ৯ কিলোমিটার। শিল্ড ড্রাইভেন মেথডে নির্মিতব্য টানেলটি হবে দুটি টিউবে দুই লেন করে চার লেনের।

টানেলটি নির্মিত হলে চীনের সাংহাইয়ের মতো চট্টগ্রাম হবে ওয়ান সিটি টু টাউন। এতে ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের গতিশীলতা বাড়বে। নদীর ওপারে ইপিজেড স্থাপনের ফলে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির পাশাপাশি নগরায়নের নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। এশিয়ান হাইওয়ের সাথে সংযোগসহ টানেলটি যুক্ত করবে প্রস্তাবিত মিরসরাই-কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ, প্রস্তাবিত ঢাকা-চট্টগ্রাম এক্সপ্রেসওয়ে এবং প্রস্তাবিত চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পকে।

ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // এই লেখাটি ৭১৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন