সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৫ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রহস্যময় বস্তুটি পৃথিবীতে আঘাত হানবে ১৬ ফেব্রুয়ারি!

মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০১৭

287073089_1485803491.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
গত বছর মার্কিন গবেষণা সংস্থা নাসা পৃথিবীর দিকে আগত একটি বস্তু শনাক্ত করেছে, যা ধূমকেতু বা গ্রহাণু হতে পারে। মহাকাশ সংস্থাটি জানিয়েছে, এটা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। কিন্তু সম্প্রতি এক শখের জ্যোতির্বিদ বললেন ভিন্ন কথা।

নাসা জানিয়েছে, রহস্যময় বস্তুটি প্রায় ৩ কোটি ২০ লাখ মাইল দূরত্ব দিয়ে পৃথিবীকে অতিক্রম করে যাবে আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু এক স্ব-ঘোষিত জ্যোতির্বিদের দাবি, আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি পৃথিবীর সঙ্গে সংঘর্ষ ঘটবে এই গ্রহাণু বা ধূমকেতুর এবং এর ফলে মেগা-সুনামির সৃষ্টি হবে।

‘২০১৬ ডব্লিউএফ৯’ নামক রহস্যময় এই বস্তুটি গত বছর আবিষ্কৃত হয়েছে। গত নভেম্বরে নাসার ‘নিওওয়াইজ’ মহাকাশযানের টেলিস্কোপে ধরা পড়ে পৃথিবীর দিকে দ্রুত গতিতে ধেয়ে আসা বস্তুটি। কিন্তু এটি গ্রহাণু নাকি ধূমকেতু তা এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি নাসা।

২০১৬ ডব্লিউএফ৯ বস্তুটি আকারে বেশ বড়, লম্বায় প্রায় ০.৩ থেকে ০.৬ মাইলের মতো। ছুটে আসছে বৃহস্পতির পাশ কাটিয়ে গ্রহাণুপুঞ্জ ও মঙ্গলের কক্ষপথ ছুঁয়ে পৃথিবীর দিকে। এটি ২৫ ফেব্রুয়ারি পৃথিবীর কক্ষপথ অতিক্রম করবে। তখন পৃথিবী থেকে তার দূরত্ব বজায় থাকবে ৩ কোটি ২০ মাইল, ফলে তার প্রভাব পৃথিবীতে পড়বে না বলে জানিয়েছে নাসা।

তবে রাশিয়ান জ্যোতির্বিজ্ঞানী ড. দয়োমিন দামির জেকরোভিচ দাবি করেছেন, ‘এটি সোজা আমাদের গ্রহের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। যার প্রভাব পৃথিবীতে পড়তে পারে কিংবা সরাসরি পৃথিবীতে আঘাত হানতে পারে। যদি আঘাত হানে তাহলে শহরগুলো ধ্বংস হবে, সুনামির সৃষ্টি হবে। আমরা সবাই বিপদের মধ্যে রয়েছি।’

ঢাকা, মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি ৬৬৩৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন