সর্বশেষ
রবিবার ৮ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ঘাড় ও হাঁটুর ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায়

বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২২, ২০১৭

1264773379_1487774817.png
বিডিলাইভ ডেস্ক :
বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাঁটুর কারটিলেজগুলো ক্ষয় হতে থাকে। এক্ষেত্রে জয়েন্ট বা অস্থিসন্ধির মার্জিন অমসৃণ হয়ে জয়েন্টের গ্যাপ কমে যায়। ফলে জয়েন্ট বা অস্থিসন্ধি নাড়াচাড়া করতে ব্যথা অনুভূত হয়।
 
অন্যদিকে ঘাড়ের যন্ত্রণাকে কয়েকটি ভাগে ভাগ করা যায় যেমন, ঘাড়ের অংশটুকু সারভাইক্যাল স্পাইন, পিঠের অংশকে থোরাসিক স্পাইন, কোমরের অংশকে লাম্বার স্পাইন ও কোমরের নিচের অংশকে সেকরাল স্পাইন বলে।  
 
তবে এসব ব্যথা দূর করার আধুনিক ওষুধের আবিষ্কার না হলেও কিছু ঘরোয়া উপায়ে এসব ব্যথা দূর করা সম্ভব।

১. অলিভ অয়েল:
এই তেলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই ও কে আছে। এছাড়াও অলিভ ওয়েলের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিডসমৃদ্ধ। এই তেল যে কোনো ধরনের প্রদাহ কমাতেও দারুণ কাজ করে। এর নিয়মিত ব্যবহারে দূর হতে পারে ঘাড় ও হাঁটুর ব্যথাও।
 
২. লবণ:
এতে রয়েছে পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেশিয়াম, যা স্ট্রেস কমিয়ে শরীরে ক্যালসিয়ামের মাত্রা স্বাভাবিক রাখে। যেটি হাড় মজবুত করে এবং যন্ত্রণা কমাতে দারুণ কার্যকরী।
 
তাহলে জেনে নিন কীভাবে এই দুটি উপকরণ মিলিয়ে ওষুধ তৈরি করবেন.....
 
১০ চামুচ ভাল মানের লবণ ও ১২-১৫ চামুচ অলিভ অয়েল নিন। এই দুটি উপকরণ পরিমাণ মতো নিয়ে একটা কন্টেনারে মেশান। যখন দেখবেন লবণ এবং অলিভ অয়েল ভালো করে মিশে গেছে, তখন কন্টেনারের মুখটা বন্ধ করে দিন।
 
২ দিন রেখে দিয়ে শরীরের যেখানে যেখানে ব্যথা আছে লাগান। দেখবেন ব্যথা অনেকটাই কমে অাসছে।
 
কীভাবে লাগাবেন এই মিশ্রণটি?
সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর অল্প করে এই মিশ্রণটি হাতে নিয়ে যন্ত্রণার স্থানে ২-৩ মিনিট ভালো করে মালিশ করুন। প্রতিদিন মালিশ করার সময়াটা বাড়ান। এমনটা করলে দেখবেন ১০ দিনের মধ্যেই যন্ত্রণা অনেকটাই কমে যাবে।
 
সতর্কতা: এ মিশ্রণটি লাগানোর পর যদি দেখেন অ্যালার্জি হচ্ছে। সেক্ষেত্রে ওইসব স্থানে বেবি পাউডার লাগিয়ে দিন। এটা করলে অ্যালার্জিও কমে যাবে।

ঢাকা, বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২২, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এ এম এই লেখাটি ১২৬৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন