সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১২ই চৈত্র ১৪২৫ | ২৬ মার্চ ২০১৯

রক্ত, সাপ, পাখির মল দিয়ে ফেসিয়াল!

বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৩, ২০১৭

1325860583_1490258462.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
রূপচর্চা নারীদের একটি স্বাভাবিক প্রবণতা। এর জন্য অস্বাভাবিক পথ অবলম্বন করতেও দ্বিধা করেন না কেউ কেউ। জেনে নিন পৃথিবীর তিনটি অদ্ভুদ রূপচর্চা, যা শুধু বিস্মিত নয়, আতঙ্কিত করবে আপনাকে।

নিয়মিত ফেসিয়াল করান নামিদামি প্রসাধনীর সাহায্যে। গোল্ড ফেসিয়াল, পার্ল ফেসিয়ালের রয়েছে আরও অনেক ধরন। কিন্তু কখনও ব্লাড ফেসিয়াল বা প্ল্যাসেন্টা ফেসিয়ালের নাম শুনেছেন! এমনই সব ফেসিয়াল রয়েছে সারা বিশ্বে, যা শুনলে শিউরে উঠবে শরীর।

ব্লাড ফেসিয়াল:
ধমনীতে প্রবাহিত রক্ত নাকি ফেসিয়ালের প্রধান উপাদান। ভাবুন একবার! ব্যক্তির শরীর থেকে সিরিঞ্জে করে রক্ত বের করে ত্বকের ওপর প্রয়োগ। কিছুক্ষণ রেখে জল দিয়ে ধোয়ার পর জেল্লা ঝিলিক দিয়ে ওঠে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে নাকি এই ফেসিয়াল খুব কার্যকরী। ব্লাড ফেসিয়ালের অন্যতম ভক্ত হলিউড তারকা কিম কার্দাশিয়ান।

স্নেক ম্যাসাজ:
দুর্বলচিত্তের মানুষ হলে ভুলেও ট্রাই করতে যাবেন না। আস্ত একটা সাপ সারা শরীরে ম্যাসাজ দেবে। ইন্দোনেশিয়া ও ইসরায়েলের মহিলাদের মধ্যে যদিও এই স্নেক ফেসিয়াল খুব জনপ্রিয়।

ক্যাকটাস ফেসিয়াল:
ক্যাকটাসের মধ্যে থাকা অ্যান্টি-অ্যাকনে উপাদান ত্বকের জন্য কার্যকরী। তা ত্বকের নানা সমস্যা দূর করার পাশাপাশি ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে।

পাখির মল দিয়ে ফেসিয়াল:
অবাক কাণ্ড হলেও বিশেষজ্ঞরা বলেন, পাখির মল নাকি ত্বকের জন্য ভালো। জাপানে খুব জনপ্রিয় এই ফেসিয়াল। নিমেষের মধ্যে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওঠে।

শামুক দিয়ে ফেসিয়াল:
বিশেষজ্ঞদের মতে, শামুকের শরীর থেকে যে লালা বা শ্লেষ্মা বের হয়, তা ত্বকের জন্য খুব উপযোগী। কারণ, তার মধ্যে রয়েছে প্রোটিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া, যা ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে। ত্বকে যাতে বয়সের ছাপ না পড়ে, তার জন্য এই ফেসিয়াল কার্যকরী।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৩, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এইচ এই লেখাটি ২৪৪৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন