সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৩রা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ভোলায় রবিশস্যের ব্যাপক ক্ষতি

মঙ্গলবার, এপ্রিল ১১, ২০১৭

1890423325_1491900641.jpg
ভোলা প্রতিনিধি :
চলতি মৌসুমের শুরুতে আগাম বৃষ্টি এবং সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে সারা দেশের মত ভোলাতেও রবিশস্যের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। এতে করে ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ৪৫ হাজার ৮শ ৪০ জন কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হন। যার ফলে এ বছর ভোলায় ৮৬ হাজার ৩শ ৩০ হেক্টর জমির মধ্যে ১৯ হাজার ১৬ হেক্টর জমি দুর্যোগ কবলিত হয়।

উপৎপাদনের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিলো তাতেও প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়েছে। নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হবে কি না তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। যার ফলে ১ লাখ ৫৭ হাজার ১৬ মেট্রিক টন ফসলের ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। যার অর্থেক পরিমান হচ্ছে ১৯৪ কোটি ১৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা। জমি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন ভোলার কৃষকরা।

ইলিশা ইউনিয়নের আলু চাষী নুরে আলম জানান, এ বছর তিনি ১০ একর জমিতে আলু চাষ করেছেন। এর মধ্যে ভাইরাসে ৫ একর জমির আলু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৩ একর জমির আলু বিক্রি করলেও বাকী ২ একরের আলু উত্তেলন করা সম্ভব হয়নি। তিন দিনের টানা বৃষ্টিতে ১ একর আলু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যা টাকার অংকে প্রায় ২ লাখ টাকা।

চর আনন্দ গ্রামের চাষী সিরাজ ও রহিম বলেন, এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে আলু আবাদ করেছি, কিছু জমির আলু বাজারে বিক্রি করলেও বৃষ্টিতে খেতের অনেক আলু ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্ত তরমুজ চাষীরা বলছেন, গত বছর তরমুজের বাম্পার ফলন হওয়ায় এ বছর আরো বেশি জমিতে তরমুজের আবাদ করা হয়েছে। কিন্তু ফলন তোলার আগেই শীলাবৃষ্টিতে তরমুজ খেতে বিপর্যয় নেমে এসেছে। অনেকেই এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে চরম সংকটের মধ্যে পড়েছেন। কেউ কেউ খেত পরিচর্যা করে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন, তবে বেশিরভাগ চাষীই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। আবাদের খরচ আর ঋণ পরিশোধ নিয়ে চিন্তিত কৃষকরা।

এ ব্যাপারে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক প্রশান্ত কুমার সাহা’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ভোলায় এ বছর রবি শস্যের যে পরিমান ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে তার একটি তালিকা করা হয়েছে। ওই তালিকা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠিয়ে ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে। সেখান থেকে ক্ষতিপূরণ পেলে তা ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মাঝে বিতরণ করা হবে। এছাড়া যে সমস্ত কৃষকদের রবিশস্য আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদেরকে সৃষ্ট সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে তারা।

ঢাকা, মঙ্গলবার, এপ্রিল ১১, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৮২৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন