সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৫ নভেম্বর ২০১৮

চাঁদ, সূর্যের মালিকানা ছিল ডিন লিন্ডসের

রবিবার, মে ৭, ২০১৭

1362265335_1494150669.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
শিরোনাম দেখে অবাক হওয়ার কিছু নাই। শুধু চাঁদ-সূর্য নয়, এর সঙ্গে পৃথিবী ছাড়া অন্য সব গ্রহ, উপগ্রহ, ধূমকেতু, উল্কাসহ পুরো সৌরজগতেরই মালিকানা ছিল ডিন লিন্ডসের হাতে। চন্দ্র বিজয়েরও অনেক আগে সেই ১৯৩৭ সালে এসবের মালিকানা নিয়েছিলেন তিনি। ওই সময় স্থানীয় আদালত তার দাবি মেনেও নিয়েছিলেন।

প্রথমে পিটসবার্গ নোটারি পাবলিকের কার্যালয়ে মহাকাশের মালিকানা চেয়ে আবেদন করেন লিন্ডসে। তিনি অবশ্য পৃথিবীকে ছাড় দিয়েছিলেন। কারণ হিসেবে বলেছিলেন, যেহেতু পৃথিবীকে অনেক মানুষ নিজেদের বাসস্থান মনে করে, তাই আর এতে হাত বাড়াতে চান না! তবে এই সৌরজগতের অন্য সব গ্রহ ও উপগ্রহের মালিকানা দাবি করেছিলেন। এসবের নামও দিয়েছিলেন লিন্ডসে, ‘এ.ডি.লিন্ডসের দ্বীপপুঞ্জ’। প্রথম আবেদনে শনি ও চাঁদের কথা উল্লেখ করেননি তিনি।

তবেপরে এগুলোরও মালিকানা চান আলাদা আলাদা আবেদনে। এসব করেই ক্ষান্ত হননি তিনি। নিজের মালিকানা বৈধ করতে ওই বছরের জুন মাসে জর্জিয়ার ওসিলা শহরের স্থানীয় আদালতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাঠান লিন্ডসে। এসব আবেদন দেখে মুহুরি কী ভেবেছিলেন, তা জানা না গেলেও বিধি মোতাবেক সেই আবেদন নথিবদ্ধও করেছিলেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা।

অবশ্য ১৯৬৭ সালে দূর মহাকাশ চুক্তি হওয়ার পর লিন্ডসের এই মালিকানা বাতিল হয়ে যায়। ওই চুক্তিতে বলা হয়, মহাকাশ সব জাতির জন্য উন্মুক্ত থাকবে। কোনো দেশ এর ওপর মালিকানা দাবি করতে পারবে না।

এই চুক্তি হওয়ার পরও ডেনিস হোপ নামের এক ব্যক্তি ফের মহাকাশের মালিকানা দাবি করেছিলেন। ১৯৮০ সালে এ-সংক্রান্ত দাবি তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র, তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন ও জাতিসংঘের কাছে পাঠিয়েছিলেন। চাঁদ, আটটি গ্রহ ও সেগুলোর উপগ্রহের মালিকানা দাবি করেই বসে থাকেননি ডেনিস, সেখানকার জমি বিক্রিও করেছেন! ২০১৩ সালে তিনি জানিয়েছিলেন, এ পর্যন্ত চাঁদের ৬ হাজার ১১০ লাখ একর, মঙ্গল গ্রহের ৩ হাজার ২৫০ লাখ একর এবং বুধ ও শুক্র গ্রহের মোট ১ হাজার ২৫০ লাখ একর জমি বিক্রি করেছেন!

তবে হুজুগে পড়ে সৌরজগতের মালিকানা দাবি করলেও তা পেয়ে যাওয়ার পর ডিন লিন্ডসে যারপরনাই অবাক হয়েছিলেন। বন্ধুকে লেখা এক চিঠিতে তিনি বলেছিলেন, ‘তুমি কি বিশ্বাস করতে পারছ? সূর্য, চাঁদ, গ্রহ, নক্ষত্র—এই সবকিছুর মালিকানা আমার?’
সূত্র: প্রথম আলো

ঢাকা, রবিবার, মে ৭, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ১৩৬৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন