সর্বশেষ
বুধবার ৩০শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৪ নভেম্বর ২০১৮

যেসব কৌশলে বাথরুম থাকবে দুগর্ন্ধমুক্ত

শনিবার, মে ১৩, ২০১৭

2139246693_1494666743.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
ঘর পরিষ্কার করতে কিংবা ঘর সাজাতেই সব সময় ব্যস্ত থাকি আমরা। বাথরুমের দিকে খুব একটা লক্ষ্য রাখা হয় না। কিন্তু বাথরুমের মাধ্যমেই একজন মানুষের নান্দনিক রুচির প্রকাশ পায়। আর সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো দুর্গন্ধ, যার জন্য লজ্জায় পড়তে হয়। তবে কিছু সহজ উপায়েই বাথরুমের দুর্গন্ধ দ্রুত দূর করা সম্ভব। জেনে নিন সেই উপায়গুলো।

# রুম ফ্রেশনার ব্যবহার করুন
বাথরুমের দুর্গন্ধ দূর করার খুব সহজ একটি উপায় হলো রুম ফ্রেশনার। আপনি রুমের যে ফ্রেশনারটা ব্যবহার করেন সেটি বাথরুমেও ব্যবহার করতে পারেন। রুম ফ্রেশনার দিয়ে বাথরুমে স্প্রে করার কিছুক্ষণের মধ্যে দুর্গন্ধ গায়েব হয়ে যাবে।

# মোমবাতি রাখুন
ছোট একটি সুগন্ধি মোমবাতি বাথরুমে রাখুন। এটি বাথরুমের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করার পাশাপাশি বাথরুমকে দুর্গন্ধমুক্ত রাখবে। তবে খুব কড়া গন্ধের মোমবাতি ব্যবহার করবেন না।

# বাথরুম শুকনো রাখুন  
ভেজা স্যাঁতস্যাঁত বাথরুম থেকে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। তাই বাথরুমের মেঝে শুকনো রাখার চেষ্টা করুন। বাথরুম পরিষ্কারের পরে দরজাটা খোলা রাখুন। দেখবেন কিছুক্ষণের মধ্যে মেঝে শুকিয়ে গেছে।

# বেকিং পাউডারের ব্যবহার
আপনার কমোডের দুর্গন্ধ দূর করার পাশাপাশি কমোডকে নতুনের মত সাদা করে দেবে বেকিং পাউডার। প্রথমে কমোডটি ফ্ল্যাশ করে একটু বেকিং পাউডার ছিটিয়ে দিন। ১ ঘন্টা পর ফ্ল্যাশ করে ফেলুন। আপনার কমোডের দাগ দূর হওয়ার সাথে সাথে কমোডের দুর্গন্ধও দূর হবে।  

# বাথরুম নিয়মিত পরিষ্কার করুন
নিয়মিত বাথরুম পরিষ্কার না রাখলে এর গন্ধ আবার ফিরে আসবে। তাই বাথরুম নিয়মিত পরিষ্কার করুন। বাথরুমের বেসিন, কমোড, টাইলস ইত্যাদি পরিষ্কার রাখুন।  

# ভিনেগার
অনেকের বাথরুমে ধূমপান করার অভ্যাস রয়েছে। বাথরুম একটি বদ্ধ জায়গা ফলে সিগারেটের ধোঁয়ার গন্ধটা দীর্ঘ সময় স্থায়ী হয়। একটি টাওয়ালে ভিনেগার মিশিয়ে বাথরুমে ঝুলিয়ে রাখুন। ভিনেগার বাথরুমের দুর্গন্ধকে আস্তে আস্তে শুষে নিয়ে বাথরুমকে দুর্গন্ধ মুক্ত রাখবে।

# বাথরুমের জানলাটা খোলা রাখুন
বাথরুমের জানলাটা খোলা রাখার চেষ্টা করুন। সারাক্ষণ না হোক দিনের কিছু সময় জানলাটা খোলা রাখুন। এটি বাথরুমের গন্ধটা দূর করে দিয়ে বাথরুমে বাতাস চলাচল বাজায় রাখবে।

ঢাকা, শনিবার, মে ১৩, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ১৪৯৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন