সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১০ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রমজান মাসে ভ্রমণে জরুরি পরামর্শ

রবিবার, মে ২৮, ২০১৭

165822229_1495968505.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
রমজান মাসে কর্মজীবনের চাপে কিংবা স্বভাবগত কারণে অনেক মানুষকে ভ্রমণ করতে হয়। এখন রমজান মাসে ভ্রমণের বিষয়টি স্বাভাবিকভাবেই অন্য সময় থেকে আলাদা। এই বিশেষ মাসে ভ্রমণের জন্য কিছু পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।  

১. ভ্রমণের সময়সূচি:- মুসলমানদের রমজান মাসে ভ্রমণের সময় বিশেষ কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। বিশেষ করে ইফতারি ও সেহরির সময় মাথায় রেখেই ভ্রমণের সময় নির্ধারণ করতে হবে। বাস বা বিমান যেটাতেই ভ্রমণ করেন না কেন, এমন সময় বেছে নেওয়ার চেষ্টা করুন যেন ইফতারির আগে বা সেহরির আগে গন্তব্যে পৌঁছতে পারে। তাহলে অন্তত একটি অংশ আরামের সঙ্গে সারতে পারবেন। দীর্ঘ সময়ের ভ্রমণে হয়তো এমন সমস্যা হবে। কিন্তু স্বল্প সময়ের ভ্রমণে কোনো সমস্যাই হওয়ার কথা নয়।  

২. নামাজের সময়:- মাথায় রাখতে হবে নামাজের সময়সূচি। যদি এক দেশ থেকে আরেক দেশে ভ্রমণে যান, তাহলে সেই দেশের সময়ের হিসাব রাখবেন। ভ্রমণের মাঝেও নামাজের ওয়াক্ত পড়ে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে সুযোগ করে নামাজ পড়ে নিন। রজমান মাস উপলক্ষে সাধারণ ভ্রমণের বিভিন্ন মাধ্যমে মুসলমানদের জন্য নামাজ ও অন্যান্য ব্যবস্থা রাখা হয়।  

৩. অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু ঘটতেই পারে:- যখন ভ্রমণে রয়েছেন তখন যেকোনো কিছুই ঘটে যেতে পারে। মারাত্মক যানজটে আটকে যেতে পারেন। বৈরি আবহাওয়ার কারণেও ইফতারি বা সেহরির সময় দেরি হয়ে যেতে পারে। ভিন্ন দেশে ভ্রমনের কারণে হয়তো হালাল খাবারের সংকটে পড়ে গেলেন। ইফতারি বা সেহরির সময় হয়তো এমন কোনো স্থানে আটকে গেলেন যে কিছুই মিলছে না। এমন নানা ধরনের সমস্যা হতেই পারে। এই জরুরি পরিস্থিতিগুলো মাথায় রেখেই ব্যাগে করে কিছু খাবার নিয়ে নিন। স্বাস্থ্যসম্মত স্ন্যাকস এবং পানি রাখতে পারেন।  

৪. খাবারের স্টক:- ভ্রমণে হয়তো এমন হোটেলে উঠবেন যেখানে ইফতার ও সেহরির সুবিধা মিলবে না। আশপাশেও হয়তো এমন হোটেলের সন্ধান পাবেন না। এই ঝুঁকির কথা মাথায় রেখে বাড়তি খাবারের কিছু স্টক সঙ্গেই রাখুন।  

৫. পাতে কী আছে?:- মুসলমানদের হালাল খাবারের বিষয়টি অতি গুরুত্বপূর্ণ। কাজেই আপনার পাতে কী কী খাবার রয়েছে তা জেনে নিন। রেস্টুরেন্টে বসলে ওয়েটারের কাছে জেনে নিন খাবার সম্পর্কে। বিমানে থাকলে অবশ্যই বিমানবালাদের কাছে জানান যে আপনি ইফতারি বা সেহরি খাবেন। অপরিচিত খাবার দেখলে ওটা কী তা জেনে নিন।  

৬. একই ধর্মের ভাই-বোনদের খোঁজ রাখুন:- যেখানেই যান আশাপাশে একটু নজর রাখুন। কোনো মুসলমানকে দেখলে তার কাছ থেকে অনেক কিছু জেনে নিতে পারেন। কোথায় নামাজ পড়বেন, কোথায় ইফতারি বা সেহরি সারতে পারবেন ইত্যাদি জেনে নিন।

ঢাকা, রবিবার, মে ২৮, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জেড ইউ এই লেখাটি ৮৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন