সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১০ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

হিমশৈলের ধাক্কা নয়, অন্য কারণে ডুবেছিল টাইটানিক

শুক্রবার, জুন ২, ২০১৭

1458306403_1496403121.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
এতদিন ধরে সবাই জানত হিমশৈলের ধাক্কায় ভেঙে দুই টুকরো হয়ে আটলান্টিকের তলদেশে ঘুমিয়ে রয়েছে টাইটানিকের অবশিষ্টাংশ। তবে নতুন করে জল্পনা উঠেছে টাইটানিকের ধ্বংস হয়ে যাওয়ার কারণ নিয়ে।

'কোনও হিমশৈল নয়, আগুনই নাকি টাইটানিকের ধ্বংসের কারণ।' সম্প্রতি এক আইরিশ সাংবাদিক ম্যালোনি এমনটাই জানিয়েছেন।

গত ৩০ বছর ধরে তিনি টাইটানিকের ওপরে গবেষণা চালাচ্ছেন। তিনি জানিয়েছেন, আগুনের কারণেই জাহাজটি ভয়ানকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছিল। তার মতে, হিমশৈলটি ধাক্কা মারার ফলে জাহাজটির সেভাবে কোনও ক্ষতিই হয়নি। অথচ আজকের দিনে দাঁড়িয়ে এই সত্যটি সকলেরই অজানা। 'টাইটানিক: দ্য নিউ এভিডেন্স' নামে একটি তথ্যচিত্রে গোটা বিষয়টি তুলে ধরেছেন ম্যালোনি।

প্রসঙ্গত, ১৯১২ সালে বেলফাস্ট থেকে রওনা হওয়ার পরই জাহাজের নিম্নবর্তী অংশে যে আগুন জ্বলছিল, সেই আগুনই জাহাজের খোলটিকে ধীরে ধীরে দুর্বল করে দেয়। প্রায় ৪ দিন পরে সেই আগুন নেভানো হয়। মূলত ওই হিমশৈলে ধাক্কা লাগার পরেই ভেঙে যায় জাহাজটি। এ ঘটনায় মৃত্যু হয় প্রায় ১৫০০ মানুষের।

১৯১২ থেকেই লোকমুখে শোনা যেত, ৩০০ ফুটের একটি গভীর ক্ষতের কারণে জাহাজটি ভেঙে যায়। যদিও ধ্বংসাবশেষ পরীক্ষার পর অনেক কিছু খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ঢাকা, শুক্রবার, জুন ২, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জেড ইউ এই লেখাটি ১৩৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন