সর্বশেষ
বুধবার ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ২১ নভেম্বর ২০১৮

ঈদ ফ্যাশনে ছেলেদের আরামদায়ক জুতা

শনিবার, জুন ১৭, ২০১৭

2125278895_1497674840.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
ঈদ ফ্যাশনের একটা অংশ জুতা। আর জুতা যদি পোশাকের সাথে মানানসই না হয়, তবে ফ্যাশনটাই যেন অপূর্ণ থেকে যায়। এছাড়া একথাও সত্যি যে, জুতা দেখেই নাকি রুচিবোধ চেনা যায়। তাই ঈদে জুতা কেনায় হোন সচেতন।

ঈদে মেয়েদের ফ্যাশনের সাথে তাল মিলিয়ে চলে ছেলেদের ফ্যাশনটাও। চলুন জেনে নিই, ঈদের সময়টাতে ছেলেদের জন্য কেমন জুতা ফ্যাশনেবল ও আরামদায়ক হবে-

স্লিপার:
সাধারণত টি-শার্ট, পাঞ্জাবি বা ফতুয়ার সঙ্গে অনায়াসে ম্লিপার ব্যবহার করতে পারেন। নরম এবং একটু পুরু সোলের স্লিপার গুলো আপনার পায়ে দেবে পুরোপুরি স্বস্তি। পায়ের বেশির ভাগ খোলা থাকায় পা ঘেমে ভেজার আশঙ্কা থাকবে না। অপরদিকে উচু সোলের কারণে পায়ে ধুলা ওঠার ভয় থাকবে কম।

স্নিকার্স:
এই গরমেও সবচাইতে স্টাইলিশ লুকটি এনে দিতে পারে স্নিকার্স। এই ধরণের জুতা পরতে বেশ আরামদায়ক। পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে বেছে নিন আপনার পছন্দের জুতাটি।

মোক্কাসিন:
এ ধরণের জুতা সব পোশাকের সঙ্গে মানিয়ে যায়। স্টাইলিশ লুক আর আরামদায়ক অনুভূতি আনতে এই জুতার তুলনা হয় না। নরম চামড়ার তৈরি এই জুতাগুলো ফিতাসহ এবং ফিতা ছাড়াও পাওয়া যায়। মোজা ছাড়া পড়া যায় বলে এই ধরণের জুতা গরমের সময় বেশ উপযোগী।

বোট সু:
বোট সু যেকোনো পোশাকের সঙ্গে পরতে পারেন। লেদার কিংবা ক্যানভাসের তৈরি এই জুতার সোল তৈরি হয় রাবার দিয়ে। গরমের সময় মোজাতে বেশি অস্বস্তি বাড়ায়। মোজা ছাড়াই বোট সু গুলো আপনাকে দেবে স্টাইলিশ লুক।

এসপাড্রিলস:
গরমের জন্য আরামদায়ক এসপাড্রিল জুতা। যে কোনো পোশাকের সঙ্গে এটি মানিয়ে যায়। নরম পাটের সোলের এই জুতার ওপরের অংশ তৈরি হয় ক্যানভাস দিয়ে। খুবই হালকা ধরণের এবং বাতাস চলাচলের জন্য উপযোগী। জুতোগুলো গরমের জন্য খুবই আরামদায়ক।

ঢাকা, শনিবার, জুন ১৭, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৮৮১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন