সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৯শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৩ নভেম্বর ২০১৮

উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পর্তুগালে ঈদুল ফিতর উদযাপন

সোমবার, জুন ২৬, ২০১৭

7433449_1498480865.jpg
প্রবাসী ডেস্ক :
যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পর্তুগালের রাজধানী লিসবন ও বাণিজ্যিক বন্দর নগরী শহর পোর্তোতে পালিত হলো ঈদুল ফিতর।

বাংলাদেশি অধ্যুষিত পর্তুগালের লিসবনের মাতৃ মনিজ পার্কের মাঠে ঈদের বড় জামাত সকাল সাড়ে আটটায় অনুষ্ঠিত হয়। লিসবন বাইতুল মোকাররম মসজিদের খতিব মাওলানা আবু সায়িদ ঈদ উল ফিতরের জামাত পরিচালনা করেন, নামাজ পূর্বে ঈদ উল ফিতরের তাৎপর্য নিয়ে বয়ান করেন মাওলানা ইব্রাহিম মোল্লা। পর্তুগালের নিযুক্ত বাংলাদেশের দুতাবাসের রাষ্ট্রদূত মোঃ রুহুল অালম সিদ্দিকী সহ দুতাবাসের কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং পর্তুগাল কমিনিটির বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও আঞ্চলিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশির বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেন।

এছাড়াও বাণিজ্যিক বন্দর নগরী শহর পোর্তোর বাঙ্গালী অধ্যুষিত রুয়া দে লউরেইরোর হযরত হামজা (রঃ) মসজিদে ঈদ উল ফিতরের দুইটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় পোর্তোর বাংলাদেশ কমিনিটির নেতৃবৃন্দ সহ ঈদের জামাতে বাংলাদেশির পাশাপাশি আফ্রিকা এবং পশ্চিমা বিশ্বের বিভন্ন দেশের অন্য্যন্য কমিউনিটির ধর্মাবলম্বী মুসলমানদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

ঈদের জামাত গুলোতে শিশু থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত অংশগ্রহণ ছিল লক্ষ্যণীয়। ঈদের জামাতের পর ইসলামিক প্রচলিত প্রথা অনুযায়ী বাংলাদেশিসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের মুসল্লীরা কোলাকুলি করে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেন। তবে লিসবনের বাংলাদেশিদের দেশীয় ঐতিহ্যবাহী পাজামা পাঞ্জাবিতে বাংলাদেশিদের ঈদের ময়দানের দিকে ছুটে চলা যেন বাংলাদেশের কথাই মনে করিয়ে দিলো পর্তুগালের লিসবনের মাতৃ মনিজ পার্ক সহ পোর্তোর রুয়া দে লউরেইরোর ঈদগাহ ময়দান।

এছাড়া লিসবনের সেন্ট্রাল মসজিদ সকাল ৮টা ৩০মিঃ এবং ৯টা ৩০মিঃ দুইটি, অদেমিরায় সকাল ৭.৪৫ মিনিটে একটি, কাস্কাইসে ৮.৩০মিঃ একটি, আমাদোরার রিবাইরালো বাংলাদেশি জামে মসজিদে সকাল ৮.৩০মিনিটে একটি, পোর্তোর সেন্ট্রাল মসজিদে ৭.৩০মিঃ, ৮.৩০মিঃ, ৯.৩০মিঃ তিনটি ঈদের জামাত সহ লিসবনের ও আলগ্রাব শহরের আশ-পাশের বিভিন্ন মসজিদেও উল্লেখযোগ্য বিপুল সংখ্যক মুসলমান তাদের প্রধান ও ধর্মীয় ঈদ উৎসব পালন করেন।

রনি মোহাম্মদ
লিসবন, পর্তুগাল থেকে
 

ঢাকা, সোমবার, জুন ২৬, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৯০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন