সর্বশেষ
শনিবার ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৭ নভেম্বর ২০১৮

মাইগ্রেন: সমস্যা ও প্রতিকার

বৃহস্পতিবার, জুলাই ২০, ২০১৭

290706393_1500562015.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
মাইগ্রেন একটি ভিন্ন ধরনের মাথা ব্যথা। মেয়েদের মাঝে এ রোগ বেশী দেখা যায়। তবে পুরুষেরও এ রোগ হতে পারে।

কেন হয়:

মাথার ভেতরের রক্তচলাচলের তারতম্যের কারণে এই রোগ হয়। রক্ত চলাচল কমে গেলে হঠাৎ করে চোখে সব অন্ধকার দেখা যায়, এবং পরবর্তীতে রক্ত চলাচল হঠাৎ বেড়ে গিয়ে প্রচণ্ড মাথা ব্যথার অনুভূতি তৈরি হয়।

চকলেট, পনির, কফি ইত্যাদি খাবার, জন্ম বিরতীকরণ ওষুধ, দুঃচিন্তা, অতিরিক্ত ভ্রমণ, ব্যায়াম ইত্যাদির কারণে এই রোগের সূচনা হতে পারে।

লক্ষণ:

মাথা ব্যথা, বমি ভাব এই রোগের প্রধান লক্ষণ। তবে অতিরিক্ত হাই-তোলা, কোন কাজে মনোযোগ নষ্ট হওয়া, বিরক্ত বোধ করা ইত্যাদি উপসর্গ মাথা ব্যথা শুরুর আগেও হতে পারে।

মাথার যেকোনো অংশ থেকে এই ব্যথা শুরু হয়। পরবর্তীতে পুরো মাথায় ছড়িয়ে পড়ে। চোখের পেছনে ব্যথার অনুভূতি তৈরি হতে পারে। চোখের উপর হালকা চাপ দিলে আরাম বোধ হয়। মাথার ২ পাশে কানের উপরে চাপ দিলে এবং মাথার চুল টানলে ভাল লাগে।

করণীয়:

যাদের এ রোগ আছে, তাদের অন্তত: দৈনিক ৮ ঘণ্টা ঘুম আবশ্যক।

অতিরিক্ত বা কম আলোতে কাজ না করা।

কড়া রোদ বা তীব্র ঠাণ্ডা পরিহার করতে হবে।

উচ্চ শব্দ ও কোলাহলপূর্ণ পরিবেশে বেশিক্ষণ না থাকা।

বেশি সময় ধরে কম্পিউটারের মনিটর ও টিভির সামনে না থাকা।

সে সব খাবার খেলে মাইগ্রেন শুরু হতে পারে সে সব খাবার যেমন কফি, চকলেট,

পনির, আইসক্রিম, মদ ইত্যাদি বর্জন করা উচিত।

অধিক সময় উপবাস থাকা যাবে না।

জন্মবিরতীকরন পিল সেবন না করা শ্রেয়। প্রয়োজনে অন্য পদ্ধতি বেছে নেয়া ভাল।
পরিশ্রম, মানসিক চাপ এবং দীর্ঘ ভ্রমণ বর্জনের মাধ্যমে মাইগ্রেনের আক্রমণ অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব।

ডা: শামস্ মোহাম্মদ নোমান
চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতাল ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র
পাহাড়তলী, চট্টগ্রাম।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জুলাই ২০, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ম. উ এই লেখাটি ৩৯৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন