সর্বশেষ
শুক্রবার ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৬ নভেম্বর ২০১৮

মায়ের ইচ্ছা পূরণের জন্য অভিনয় থেকে দুরে দীঘি

রবিবার, জুলাই ২৩, ২০১৭

2139898260_1500811307.jpg
বিনোদন ডেস্ক :
একসময়ের জনপ্রিয় শিশুশিল্পী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। মায়ের ইচ্ছা পূরণের জন্য অভিনয় থেকে নিজেকে থেকে দুরে সরিয়ে রেখেছেন তিনি।

মাঝে শোনা গিয়েছিল তিনি না কি নায়িকা হয়ে বড়পর্দায় ফিরছেন। কিন্তু পরে আর এই গুঞ্জনের সত্যতা পাওয়া যায়নি। ২০১২ সালে ‘দ্য স্পিড’ ছবিটিই ছিল দীঘির সর্বশেষ অভিনীত ছবি।

সম্প্রতি তিনি জানিয়েছেন কেমন কাটছে তার দিনকাল।

দীঘির মা প্রয়াত নায়িকা দোয়েলের ইচ্ছে ছিল মেয়ে চিকিৎসক হবে। তবে চিকিৎসক হতে ভয় পান বলে জানিয়েছেন দীঘি। ভয় পেলেও মায়ের ইচ্ছে পূরণের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি। বলেন, ‘মায়ের শেষ ইচ্ছে আমি ডাক্তার হবো, সেই লক্ষ্য নিয়ে পড়াশোনা করে যাচ্ছি, প্রফেশন কোনটা হবে তা বলা মুশকিল। তবে ডাক্তার হতে ভয় করে।’

ভয় পাওয়ার কারণটাও খুলে বলেন দীঘি। বলেন, ‘আসলে ডাক্তার হতে গেলে অনেক বেশি পড়াশোনা করতে হয়, তারচেয়ে বড় বিষয় চারদিকে যেভাবে দুর্ঘটনা ও বীভৎস ঘটনা ঘটে, তখনই মনে হয় সব কিছুই ডাক্তারের কাছে আসবে। আমি ডাক্তার হয়ে এসব বীভৎস চেহারাকে সামলাতে পারবো না মনে হয়, ভয় লাগে। সব সময় মনে হয় সৃষ্টিকর্তা যেন সবাইকে সুস্থ রাখেন, সবার যেন স্বাভাবিক মৃত্যু হয়।’

আগামী বছর মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবেন দীঘি। আর তাই পড়ালেখা নিয়ে বেশ চাপের মধ্যে আছেন তিনি। দীঘি বলেন, ‘অনেক চাপের মুখে আছি, আগামী বছর আমি এসএসসি পরীক্ষা দেব। তাই চাপটা একটু বেশি। প্রাইভেট, ক্লাস, কোচিং করতে করতে কখন সময় কেটে যায় বুঝতেই পারি না। আবার পরীক্ষার কথা মনে হলে, মনে হয় দিনগুলো খুব তাড়াতাড়ি চলে যাচ্ছে।’

পরীক্ষা দেওয়ার পর চলচ্চিত্রে কাজ করার ইচ্ছে আছে দীঘির। আর এখনো চলচ্চিত্রে কাজ করার প্রস্তাব আসে। দীঘি বলেন, ‘সব সময়ই অভিনয় করার জন্য বলেন সবাই, আমার কাছে যত অফার আসে তার চেয়ে বাবার (অভিনেতা সুব্রত বড়ুয়া) কাছে বেশি আসে, বাবাকে প্রায়ই দেখি মোবাইলে না করছেন, যে আমি এখন অভিনয় করব না। পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত আছি। আমি বাবার কাছে গিয়ে জানতে চাই কে ফোন করেছিল, কী ধরনের গল্প। বাবা তখন মাথায় হাত দিয়ে বলেন, এখন নয়, আগে এসএসসি পাস করো, পরে চিন্তা করা যাবে।’

পড়ালেখা ঠিকঠাক রেখে অভিনয়টা করতে চান দীঘি, কারণ সেটা তার রক্তেই মিশে আছে। দীঘি বলেন, ‘আমি তো অভিনয় শিল্পী, এটা আমার রক্তে আছে। যেখানেই যাই আমাকে সবাই ভালোবাসে, সেটি অভিনয়ের জন্যই। তবে আমি আগে পড়াশোনাটা শেষ করতে চাই। কারণ একজন অভিনয় শিল্পীরও পড়াশোনার দরকার আছে বলে আমি মনে করি।’

একটি বিজ্ঞপনে সবার নজর কেড়ে ‘কাবুলী ওয়ালা’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন দীঘি। প্রথম চলচ্চিত্রেই তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। এরপর আরো দুটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি পুরস্কৃত হন। সূত্র: এনটিভি।

ঢাকা, রবিবার, জুলাই ২৩, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জেড ইউ এই লেখাটি ৩৭৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন