সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৯শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৩ নভেম্বর ২০১৮

পর্তুগালে শোক দিবস পালন

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৭, ২০১৭

57294597_1502970038.jpg
প্রবাসী ডেস্ক :
স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালন করেছে লিসবনের বাংলাদেশ দূতাবাস।

দুই পর্বের অনুষ্ঠানের প্রথম পর্যায়ে মঙ্গলবার (১৫ আগস্ট) সকাল ৯টায় লিসবনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণের মাধ্যমে প্রথম পর্বের কার্যক্রম শুরু হয়।

দুপুরের বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের অন্যান্য শহীদ সদস্যদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিটের নীরবতা পালনের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত রুহুল অালম সিদ্দিকী, দূতাবাস কর্মকর্তা, পর্তুগাল প্রবাসী বাংলাদেশি, পর্তুগাল আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দগন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

সবশেষে দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে দূতাবাস প্রাঙ্গণে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন ও অন্যান্য ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠ করে শুনানো হয়। পরবর্তীতে দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র-প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শোনান দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ।

আলোচনা সভায় বক্তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে চলমান উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়িত করার মধ্য দিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণের সংকল্প গ্রহণ করা হয়। একই সাথে আদালতের রায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বঙ্গবন্ধুর ঘাতকদের যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা থেকে ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশ সরকারকে আরও তৎপর হবার আহ্বান জানানো হয়েছে।

রাষ্ট্রদূত রুহুল অালম সিদ্দিকী তার বক্তব্যের শুরুতে বাংলাদেশ সৃষ্টিতে জাতির পিতার অবদানের কথা স্মরণ করে। তিনি ভিশন ২০২১" ও ভিশন ২০৪১ অর্জনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গৃহীত সকল পদক্ষেপে সকল প্রবাসী বাংলাদেশি সম্প্রদায়ের যোগদানের প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন। যা ছিল জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার স্বপ্ন।
আলোচনা পর্বের শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার পরিবার ও ১৫ আগস্ট, ১৯৭৫ সালের শহীদদের আত্মার পরিত্রাণের জন্য বিশেষ প্রার্থনা এবং বাংলাদেশের অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির জন্য বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৭, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস এ এই লেখাটি ৮৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন