সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১০ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নির্যাতিত বৃদ্ধাকে বাড়ি তৈরি করে দিলেন ডিসি

শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৭

632349257_1506093491.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুরে ৯৮ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা 'মা' কে মেরে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে তারই বড় ছেলে বদিরউদ্দীন। ঘটনাটি ঘটে হরিপুর উপজেলার ৪নং ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নের ডাঙ্গীপাড়া গ্রামে। নির্যাতিত বৃদ্ধা 'মা' ঐ গ্রামের মৃত সফিরউদ্দীনের স্ত্রী তাসলেমা খাতুন।

জানা গেছে, গত ১৫ আগস্ট দুপুরে ছেলের বউয়ের কাছে ভাত চেয়েছিলেন তসলিমা খাতুন। এ কথা ছেলে দবির উদ্দিন জানতে পেরে লাঠি দিয়ে মাকে মারধর করেন। লাঠির আঘাতে তসলিমার বাম চোখ থেঁতলে যায়।

পরে খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক ওই বৃদ্ধা 'মা'কে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

তারই ধারাবাহিকতায় বৃদ্ধা 'মা' এর জন্য একটি টিনের ঘর, নলকূল ও স্যানিটেশনের ব্যবস্থা করাছেন ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক। তিনি হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে ফিরলে নতুন বাড়িতে উঠবেন বলে জানা যায়।

এ ব্যাপারে  ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল বলেন, ১৫ আগস্ট গভীর রাতে বৃদ্ধা মাকে মারধরের বিষয়টি জানতে পেরে খুবই ব্যাথিত হয়েছি। তাই পরদিন সকালে বৃদ্ধা 'মা' কে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহন করি। যেহেতু বৃদ্ধা 'মা' এর থাকার ঘর নিয়ে সমস্যা তাই মায়ের জন্য সন্তান হিসেবে একটি টিনের ঘর ও বাথরুম তৈরি করে দিয়েছি। যেন শেষ জীবন পর্যন্ত নিরাপদে থাকতে পারেন তিনি। শীঘ্রই হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বৃদ্ধা 'মা' কে নতুন বাড়িটি উপহার দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, মা কে নির্যাতনের অভিযোগে ছেলে দবির উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই রাতে উপজেলার ডাঙ্গীপাড়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ঢাকা, শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // আর এ এই লেখাটি ৯৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন