সর্বশেষ
সোমবার ৯ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

জিন্নাত কি পাবে পৃথিবীর সবচেয়ে লম্বা মানুষের স্বীকৃতি?

শুক্রবার, অক্টোবর ১৩, ২০১৭

799584398_1507878515.jpg
কক্সবাজার প্রতিনিধি :
ছেলেটা কিছুটা বিব্রত। ক্যামেরার সামনে কথা বলাটা তার কাছে অপরিচিত। কিন্তু গত কয়েকদিনে তার উচ্চতা নিয়ে এলাকা এবং এলাকার বাইরে অনেকের আগ্রহের শেষ নেই। অনেক বুঝিয়ে শেষে কথা বলতে রাজি হল।

"নিজেকে নিজেরই সমস্যা মনে হচ্ছে। দিন দিন বদলে যাচ্ছি। পায়ে পচন ধরেছে। উচ্চতা তো দেখছেনই....." কক্সবাজারের রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের বড়বিল গ্রামে বসবাসরত জিন্নাত আলি মুখ থেকে দীর্ঘশ্বাস ফেলে এর বেশি কিছু বলতে রাজি হলনা।

মাথায় টিউমারে আক্রান্ত জিন্নাত আলির বর্তমান ৮ ফুট ৬ ইঞ্চি উচ্চতা ছাড়িয়ে গেছে ২০০৯ সালের সেপ্টেম্বরে। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃক বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা জীবিত মানুষ হিসেবে ঘোষিত তুরস্কের সুলতান কসেনকে যার উচ্চতা ছিল ৮ ফুট ৩ ইঞ্চি। বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষকে উচ্চতায় ছাড়িয়ে যাওয়ায় সকলের মুখে এখন প্রশ্ন, জিন্নাত আলি কি স্বীকৃতি পাবে পৃথিবীর সবচেয়ে লম্বা মানুষ হিসেবে??

জিন্নাত আলিকে বর্তমানে দূর্ভোগে আছে তার কৃষক পরিবার। পরিবারের সহায় সম্পত্তি বলতে একমাত্র থাকার ভিটা ছাড়া আর কিছুই নেই। তাই নানান রোগে আক্রান্ত ১৯ বছর বয়সী জিন্নাতকে নিয়ে সমস্যার কথাই জানালেন তার মা শাহপুরি বেগম।

তিনি জানান, "ও লম্বা হওয়ার কারণে খাদ্য জোগানও দিতে হচ্ছে আগের চেয়ে অনেক বেশি। শারীরিক অবস্থা ভাল নয়। মাথায় টিউমার, ডান পায়ে ঘা হয়ে পচন ধরেছে। এক পা আরেক পায়ের চেয়ে দুই ইঞ্চি খাটো হয়ে যাচ্ছে। অর্থের অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছিনা"।

দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে তার পিতা আমির হামজা জানান, "ছেলে লম্বা হওয়ার কারণে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়াও মুশকিল হয়ে দাড়িয়েছে। রিক্সা, সিএনজি, মাইক্রো, জীপ গাড়িতে বসানো যায় না। চিকিৎসার জন্য গত এক বছর আগে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঢাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজের নেওয়ার পর ব্যয়বহুল টাকার প্রয়োজন হওয়ায় চিকিৎসার অভাবে আবারো বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। বর্তমানে লম্বা মানুষটির শারীরিক অবস্থা দিন দিন অবনতির দিকে যাচ্ছে"।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, মাত্র ১৯ বছর বয়স জিন্নাতের। বয়স বাড়ার সাথে সাথে সে আরো লম্বা হয়ে যাচ্ছে। তবে বিভিন্ন রোগ ব্যাধি তাকে আক্রান্ত করায় বর্তমানে তেমন একটা নড়াচড়া ও কোন ধরনের কাজ করতে পারছে না। এই লম্বা মানুষটিকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম জানান, ছেলেটির বয়স কম হলেও সে অনেক লম্বা হয়ে গেছে। পরিবারের পক্ষে তার শরীরের দুরাবস্থা নিয়ে চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব হচ্ছে না। এজন্য সামর্থ্যবান মানুষদের পাশে এসে দাড়ানোর আহ্বানও জানান তিনি।

ঢাকা, শুক্রবার, অক্টোবর ১৩, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস এইচ এই লেখাটি ৪৬৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন