সর্বশেষ
শুক্রবার ৬ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মান্না দে'র মৃত্যুবার্ষিকী আজ

মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৭

679725922_1508825000.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

মান্না দে গানের জগতের এক কিংবদন্তি নাম। আজ ২৪ অক্টোবর, উপমহাদেশের এ অসামান্য সংগীতপ্রতিভূর চতুর্থ মৃত্যবার্ষিকী। ২০১৯ সালের এই দিনে ব্যাঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

গুণী এ সঙ্গীতশিল্পী ১৯১৯ সালের ১ মে কলকাতার সম্ভ্রান্ত হিন্দু পরিবারে বাবা পূর্ণ চন্দ্র এবং মা মহামায়া দে ঘর আলোকিত করে জন্মগ্রহণ করেন। তার আসল নাম প্রবোধ চন্দ্র দে হলেও সংগীতময় জীবনে 'মান্না দে' ডাক নামেই খ্যাতি লাভ করেন তিনি।

কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী মোহাম্মদ রফি, কিশোর কুমার এবং মুকেশদের মতো তিনিও ১৯৫০ থেকে ১৯৭০ দশকে ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে সমান জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। সংগীত জীবনে তিনি সাড়ে তিন হাজারেরও বেশি গান রেকর্ড করেন।

ইন্দু বাবুর পাঠশালা নামে প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা গ্রহণের পর স্কটিশ চার্চ কলেজিয়েট স্কুল এবং স্কটিশ চার্চ কলেজ থেকে স্নাতক শিক্ষা গ্রহণ করেছিলেন। কাকা কৃষ্ণ চন্দ্র দে এবং ওস্তাদ দবির খানের কাছে গান শেখেন তিনি। ১৯৪২ সালে কাকার সঙ্গে মুম্বই যান। সেখানে শুরুতে কৃষ্ণ চন্দ্র দের অধীনে সহকারী হিসেবে এবং তারপর শচীন দেব বর্মণের (এসডিবর্মণ) অধীনে কাজ করেন।

এছাড়া, মান্না দে শিল্পী ও গীতিকার হেমন্ত মুখোপাধ্যায়সহ অনেক গীতিকারের সঙ্গে বাংলা ছবিতে গান করেন। মান্না দে রবীন্দ্র সংগীতসহ প্রায় ৩৫০০ গান গেয়েছেন। পঞ্চাশ বছরেরও বেশি সময় মুম্বইয়ে কাটানোর পর মৃত্যুর কয়েক বছর আগে বেঙ্গালুরর কালিয়ানগর শহরে বসবাস করে তিনি।

মান্না দের অসংখ্য হিট গানের মধ্যে কিছু গান : বাংলা কফি হাউজের সেই আড্ডা, সবাই তো সুখী হতে চায়, যদি কাগজে লিখ নাম, পৌষের কাছাকাছি রোদ মাখা, কতদিন দেখিনি তোমায়, খুব জানতে ইচ্ছে করে, ক’ফোঁটা চোখের জল, শাওন রাতে, এ মেরি জোহরা জাবিন, ইয়ে দোস্তি হাম নেহি তোড়েঙ্গে প্রভৃতি সংগীত প্রেমীদের মুখে মুখে।

'কফি হাউজের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই' গানটি বাংলা, হিন্দি, মারাঠি, গুজরাটি, পাঞ্জাবি, অসমীয়াসহ বিভিন্ন ভাষায় গেয়ে বিশ্ব সংগীতাঙ্গণে স্থান করে নিয়েছেন তিনি।


ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৫২১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন