সর্বশেষ
বুধবার ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

লক্ষ্মীপুরে মেঘনায় ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ

বুধবার, অক্টোবর ২৫, ২০১৭

96948576_1508934263.jpg
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :
লক্ষ্মীপুরে মেঘনায় জেলেদের জালে ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ। এতে ট্রলার মালিক, জেলে পল্লী ও ভোক্তা সাধারণের মুখে হাসি ফুটেছে।

মা ইলিশ রক্ষায় প্রায় মাস খানেক মৎস্য শিকার বন্ধ থাকার পর বর্তমানে জেলার হাটবাজারে ইলিশে ভরে গেছে। একেবারে টাটকা মাছ। দামও রয়েছে ক্রেতা সাধারণের হাতের নাগালে। খেতেও দারুণ স্বাদ। দারুণ খুশি স্থানীয় বাসিন্দারাসহ সংশ্লিষ্টরা।

স্থানীয় মৎস্য বিভাগ বলছে, সফল অভিযানে আগামীতে ইলিশ উৎপাদন ২৫ হাজার মেট্রিক টন ছাড়িয়ে যাবে। যার বাজার মূল্য প্রায় ১০০০ কোটি টাকা।

সদর উপজেলার মজু চৌধুরীর হাট, কমলনগরের মতিরহাট ও রামগতির আলেকজান্ডারের মৎস্যজীবী, আড়ৎদার ও স্থানীয়দের সাথে আলাপ করে জানা যায়, ১ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর মা ইলিশ রক্ষায় নদীতে অভিযান ছিল। অভিযান শেষে জেলার প্রায় ৫০ হাজার জেলে নদীতে মাছ শিকারে নেমেছেন।

যেসব ট্রলার ঘাটে ভিড়ছে, দেখা গেছে প্রায় বোটে ইলিশই বেশি ধরা পড়ছে। কারো ট্রলারে ২০ হালি থেকে ৫০ হালি ইলিশও মিলছে। জেলেরা প্রচুর পরিমাণ ইলিশ পেয়ে দারুণ খুশিতে রয়েছেন।

ব্যবসায়ীরা বলেছেন, যে হারে ইলিশ ধরা পড়ছে, জেলাবাসীর চাহিদা মিটিয়ে অন্যান্য জেলাসহ বিদেশেও রপ্তানি হচ্ছে এখানকার ইলিশ। এদিকে আগের চেয়ে কম মূল্যে ইলিশ ক্রয় করে খুশি মনে ঘরে ফিরছে ক্রেতারা। স্থানীয়রাও সুস্বাদু ইলিশ বঞ্চিত হচ্ছেন না।

স্থানীয় হাট-বাজারেও ইলিশের মূল্য হাতের নাগালে রয়েছে। ছোট ইলিশ হালি প্রতি ৩’শ থেকে ৪’শ, মাঝারি ইলিশ ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা আর বড় ইলিশ প্রকার ভেদে ২৫’শ থেকে ৩৫’শ টাকায়  বিক্রি করতে দেখা গেছে।

জেলা মৎস্য অধিদপ্তরের সিনিয়র সহকারি পরিচালক সুনিল চন্দ্র ঘোষ জানান, মা ইলিশ রক্ষার ২২ দিনের অভিযান সফল হয়েছে। এতে যে পরিমাণ মাছ নদীতে ডিম ছেড়েছে আশা করা যায় আগামীতে এ জেলায় ইলিশ উৎপাদন ২৫ হাজার মেট্রিক টন ছাড়িয়ে যাবে। যার বাজার মূল্য প্রায় ১০০০ কোটি টাকা। চলতি বছর ইলিশ উৎপাদন হয়েছে ২১ হাজার মেট্রিক টন।

ঢাকা, বুধবার, অক্টোবর ২৫, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এ এম এই লেখাটি ১৬৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন