সর্বশেষ
বুধবার ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ওরাও পর্ণ মুভি দেখে, চোখও কন্ট্রোল করতে জানে: প্রিয়তি

শনিবার, অক্টোবর ২৮, ২০১৭

1869839745_1509169538.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাংলাদেশের মেয়ে মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি ‘মিস আর্থ ইন্টারন্যাশনাল-২০১৬’ এবং ‘মিস আয়ারল্যান্ড ২০১৪‘ খেতাব অর্জন করেছেন নিজ যোগ্যতা ও মেধাবলে। বর্তমান সময়ের একটি পরিচিত মুখ প্রিয়তি।  মডেলিং ও অভিনয় জীবনে প্রিয়তি অর্জন করেছেন অনেক স্বীকৃতি ও পুরস্কার।

পাশাপাশি বাংলাদেশকেও প্রতিনিধিত্ব করেছেন আন্তর্জাতিক এসব প্রতিযোগিতার মাধ্যমে। এদিকে পেশাগতভাবে একজন বৈমানিক হিসেবে তিনি কর্মরত রয়েছেন আয়ারল্যান্ডে। নিজের কাজ ও অর্জনের শাখা-প্রশাখা ছড়িয়ে দিয়েছেন বিভিন্ন সেক্টরে। শিশুদের প্রতি রয়েছে তার অফুরন্ত ভালোবাসা। বাংলাদেশের নানা সমস্যার কথা নিয়েও কথা বলেও আলোচিত তিনি।

সম্প্রতি নিজের ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করে সকলের উদ্দেশ্যে একটি ম্যাসেজ দেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত এ মডেল। যেখানে তার উদ্দেশ্য ছিল সকলকে সচেতন করা।

আমার Chest এই ফেসবুকে নতুন কিছু না। আমার Chest বা খোলামেলা অনেক ফটোশুট অলরেডি নেট দুনিয়াতে আছে। নতুন করে পুরানো কিছু কথা বলতে চাচ্ছি। ভিডিওতে আপনারা দেখছেন আমার পিছনে ও পাশে কিছু পুরুষ মানুষ আর সামনে পুরো দেয়াল জুড়ে আয়না। চাইলেই উনারা আমার পাছার দিকে আর আয়না দিয়ে আমার বুকের দিকে তাকিয়ে থাকতে পারে, চোখে চোখ পড়তে পারে, অথচ আমি নিজ চোখে একজন কেও দেখলাম না আমার দিকে কেও তাকিয়েছে, বাজে দৃষ্টি তো দুরের কথা।

আমি বলছি না, ওরা তুলসী পাতা ধোয়া মানুষ, ওরাও তাকায় কিন্তু আমরা দেখতে পাইনা, ওরাও পর্ণ মুভি দেখে, গার্লফ্রেন্ডদের নিয়ে বিছানায় যায়। কিন্তু, একই সময় তারা তাদের ভদ্রতার সীমারেখা জানে, চোখ কন্ট্রোল করতে জানে, সম্মান করতে জানে যেন কেও তার/ তাদের পাশে অস্বস্তি অনুভব না করে এবং পাশের মানুষ যেন তার/তাদের পাশে নিরাপদ ও সিকিউর ফীল করে।

আপনারা কি পারেন না, আপনার বিপরীত লিঙ্গকে দেখার দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে? পারেন না, চোখকে কন্ট্রোল করতে? পারেন না, পাশের মানুষটি যেন আপনার পাশে অস্বস্তি ফীল না করে সেই দিকে খেয়াল রাখতে? অন্তত শিক্ষিত সমাজের কাছে তো এইটুকু আশা করা যায়। অবশ্যই পারেন, যদি আপনি চান। কারণ চোখ আপনার, মন আপনার, মস্তিষ্কও আপনার এবং এগুলোর নিয়ন্ত্রণ করার মালিক ও আপনি। দরকার শুধু নিজের সাথে নিজেই চর্চা করার, নিজেকে আয়ত্তে আনার।

ভিডিওটি গোপনভাবে তোলা। কারো অনুমতি ছাড়া কারো ভিডিও বা ছবি তোলা আইনগত ভাবে অন্যায়, কেউ চাইলে আমাকে কোর্ট পর্যন্ত নিতে পারে। কিন্তু আমার উদ্দেশ্য সৎ, একটি ম্যাসেজ দেয়া। Not for fun or humiliate anyone.

(প্রিয়তির ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)   ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন -


ঢাকা, শনিবার, অক্টোবর ২৮, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ৪৩৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন