সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৬ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ২০ নভেম্বর ২০১৮

ঘুষের টাকাসহ আটক ওয়াকফ কর্মকর্তা

সোমবার, নভেম্বর ৬, ২০১৭

1567148817_1509977254.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
অর্ধলাখ টাকা ঘুষ গ্রহণকালে গ্রেফতার হয়েছেন বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী প্রশাসক মো. মোতাহার হোসেন খান। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

আজ সোমবার তাকে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে হাজির করা হয়। এসময় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত মোতাহারকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক মাহমুদুল হাসান তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বে একটি দল রাজধানীর নিউ ইস্কাটন রোডে ওয়াকফ কার্যালয়ে ঘুষ গ্রহণকালে মোতাহার হোসেনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন।

মো. ফারুক হোসেন নামের এক ব্যক্তির বরাত দিয়ে দুদকের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ঢাকার কেরানীগঞ্জ উপজেলার বাঘৈর জামে মসজিদের নামে বিভিন্ন দাগে মোট ১ দশমিক ২৫ একর ওয়াকফ সম্পত্তি রয়েছে। মসজিদের উন্নয়নের জন্য ওই সম্পত্তি থেকে ০.৯৪ একর সম্পত্তি বিক্রির অনুমতি চেয়ে মোতাওয়াল্লি হাজী আবুল বাশার বেপারি ২০১৩ সালের ১ আগস্ট বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসক বরাবর আবেদন করেন। পরবর্তীতে তিনি বিষয়টি পরিচালনা করার জন্য মো. ফারুক হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে ক্ষমতা প্রদান করেন। মো. ফারুক হোসেন দুদকের হটলাইনে (১০৬) অভিযোগ করেন, বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী প্রশাসক মো. মোতাহার হোসেন খান এ কাজের জন্য তার কাছে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেছেন।

গত রোববার ওই ঘুষ প্রদানের কথা রয়েছে। বিষয়টি অবহিত হয়ে দুদক সব আইনানুগ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে একটি বিশেষ টিম গঠন করে। দুদক টিমের সদস্যরা রোববার সকাল থেকেই ওয়াকফ কার্যালয়ের চারিদিকে ওঁৎপেতে থাকেন। দুপুর আনুমানিক সাড়ে ১২টায় নিজ দফতরে মো. মোতাহার হোসেন খান যখন ঘুষ নিচ্ছিলেন ঠিক তখনই দুদক টিমের সদস্যরা তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন। এছাড়া তার পকেটে ও আলমারি তল্লাশি করে আরও ৭৯ হাজার টাকা পাওয়া যায়। এ টাকার উৎস সম্পর্কে তিনি কোনো জবাব দিতে পারেননি।

ঢাকা, সোমবার, নভেম্বর ৬, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস এইচ এই লেখাটি ২৪৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন