সর্বশেষ
শুক্রবার ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৬ নভেম্বর ২০১৮

শ্রীমঙ্গলে কমিউনিটি ক্লিনিকের ট্রিটমেন্ট দরকার

রবিবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৭

1012501365_1511068109.jpg
মৌলভীবাজার, সদর প্রতিনিধি :
বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য সেবা কার্যক্রম তৃণমূল জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে দেশের প্রতিটি গ্রামে একটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করা হলেও এদের অধিকাংশই যেন খাইছড়া চা বাগান কমিউনিটি ক্লিনিকের মতো বেহাল অবস্থা।

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় ৮নং কালীঘাট ইউনিয়নের খাইছড়া চা বাগান কমিউনিটি ক্লিনিকের বেহাল অবস্থা দেখে বুঝা যায় যে দীর্ঘদিনের অযত্ন আর অবহেলায় পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে ক্লিনিকটি। এখানে কোন চিকিৎসক বা রোগী আসেন কিনা সন্দেহ। যেখানে এসে তৃণমূল মানুষের ট্রিটমেন্ট নেয়ার কথা, এখন সেই কমিউনিটি ক্লিনিকেরই ট্রিটমেন্ট দরকার।

সম্প্রতি খাইছড়া চা বাগান কমিউনিটি ক্লিনিকে গিয়ে দেখা যায়, তার চারপাশে ময়লা আবর্জনায় ভরা। ক্লিনিকটির প্রধান ফটকের দেওয়ালে বিরাট ফাটল সৃষ্টি হয়েছে। যে কোনো মুহূর্তেই বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। দুর্ঘটনা আতঙ্কে এখানে রোগী আসা দূরের কথা স্বাস্থ্য কর্মীরাই নিয়মিত আসেন না। ক্লিানেকের ভেতরে গোবর মাটি ছাড়া আসবাবপত্র বলতে কিছুই নেই। আরশোলা, ছাড়পোকা আর মাকড়শা’র জালে ভড়া ক্লিনিকের চারপাশ।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য সুদর্শন ব্যানার্জীর সাথে আলাপ করলে তিনি বলেন, ক্লিনিকটির অবস্থা একেবারে ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ায় প্রায় ২ বছর ধরে এটি বন্ধ আছে।

খাইছড়া চা বাগান কমিউনিটি ক্লিনিকের কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার রাজীব সিং জানান, ক্লিনিকটি বন্ধ থাকলেও ২ বছর ধরে স্থানীয় হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার হিসেবে তিনি ক্লিনিকের পাশে নিজ বাড়িতে ঔষধপত্র সরবরাহ করে থাকেন এবং সেখানে রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করেন।

৮ নং কালীঘাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রানেশ গোয়ালা বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের বিষয়টি আমাদের হাতে নেই। এটি সম্পূর্ণভাবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বিষয়। তথাপিও ক্লিনিকটির অবকাঠামোগত উন্নয়নের লক্ষ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের যথাযথ কতৃপক্ষের সাথে বেশ কয়েকবার আলোচনা করা হলেও তারা উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের দোহাই দিয়ে বিষয়টি এড়িয়ে চলেন।

এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জয়নাল আবেদীন টিটো’র বেশ কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাকে কখনোই হাসপাতালে পাওয়া যায় নি, এমনকি তার মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে।

ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ২০৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন