সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১০ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

পুলিশের সহায়তায় কুড়িয়ে পাওয়া শিশু ঢামেকে

বুধবার, ডিসেম্বর ৬, ২০১৭

559419356_1512567839.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২১০ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বিছানায় চিকিসাধীন আড়াই বছরের একটি শিশু। তার শ্বাসকষ্ট, খিচুনি সহ নানা ধরনের জটিল সমস্যা। সরকারী হাসপাতাল হলেও তার চিকিৎসার ব্যয়ভার নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছেন চিকিৎসকেরা।

গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টায় গাবতলি বাসস্ট্যান্ডের যাত্রী ছাউনি কাছে কম্বল মোড়ানো অবস্থায় একটি শিশুকে দেখে পুলিশকে খবর দেয় পথচারীরা। তারপর দারুসসালাম থানার উপ-পরিদর্শক শারিফুজ্জামান সহ কয়েকজন পথচারীর সহযোগিতায় শিশুটিকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

দারুসসালাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিমুজ্জামান বলেন, গতকাল রাতে আমরা শিশুটিকে পেয়েছি। তখন তার শরীরে প্রচন্ড জ্বর থাকায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করি। এখনও পর্যন্ত শিশুটির কোন পরিচয় জানা যায়নি। আমরা তাকে অপরাজেয় বাংলা নামের একটি সংস্থার তত্বাবধায়নে রেখেছি।

শিশুটি হাসপাতালের ২১০ নম্বর ওয়ার্ডের শিশু মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আবদুল মতিনের অধীনে চিকিৎসাধীন রয়েছে। হাসপাতালের বিছানায় অক্সিজেন দিয়ে শ্বাস নিচ্ছে শিশুটি।

এ ব্যাপারে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মন্টি বনি বলেন, শিশুর ব্রেনে সমস্যা রয়েছে। যার কারণে খিচুনি, শ্বাস-প্রশাস, জ্বর সহ নানা ধরনের জটিলতা দেখা দিয়েছে।

ডা. মন্টি বনি আরো বলেন, গতকাল রাতে আমাদের এখানে ভর্তি হওয়ার পর দরিদ্র তহবিল থেকে টাকা দিয়ে তার একটি এক্সরে করানো হয়েছে। এছাড়া একটি বেসরকারি ওষুধ কোম্পানী শিশুটিকে একদিনের ওষুধ দিয়েছে। তার চিকিৎসা বেশ ব্যয়বহুল হবে। দেখা যাক কী হয়।

ঢাকা, বুধবার, ডিসেম্বর ৬, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // আর এ এই লেখাটি ৩২৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন