সর্বশেষ
বুধবার ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রাজপথে ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজের ডিগ্রি শিক্ষার্থীরা

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ৪, ২০১৮

6.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

এবার রাজপথে নেমেছে ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজের ২০১৪-১৫ সেশনের ডিগ্রি শিক্ষার্থীরা। তীব্র সেশনজটে পড়ে দাবি আদায়ে মানববন্ধন করেছে তারা। বুধবার দুপুরে প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ডিগ্রি ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরাসহ বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে। ৭ কলেজের মধ্যে ঢাকা কলেজ ব্যতীত বাকি ৬ কলেজেই ডিগ্রির শিক্ষার্থীরা অধ্যয়ণরত আছে।

এর মধ্যে ডিগ্রি ২০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থীরা তীব্র সেশনজটে পড়েছে। বিগত ১৭ মাস ধরেই তারা এক সেশনেই আছে। এখনও পরীক্ষার কার্যকর কোনো রুটিন প্রকাশ করা হয়নি। তবে সম্ভাব্য তারিখ দেওয়া হয়েছে ১৮ সালের মে মাসের শেষ সপ্তাহ। ওই সময় পরীক্ষা হলে এক সেশন শেষ করতেই তাদের লেগে যাবে ২৫ মাসেরও বেশি সময়। তাহলে তিন বছরের শিক্ষা জীবনের (৩৬ মাস) দুই সেশন শেষ করতেই তাদের লাগবে ৩৮ মাসেরও উপরে।

এই শিক্ষাবর্ষটি ২০১৫ সালের মার্চ-এপ্রিল মাসে তাদের ভর্তি কার্যক্রম শেষ করে। ২০১৬ সালের আগষ্টে তাদের প্রথম বর্ষ পরীক্ষা হয়। প্রথম বর্ষ শেষ করতে তাদের প্রায় দেড়বছর লাগলেও সবকিছু গুছিয়েই আনছিল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। তবে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারির দিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যায়ের ৭ কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়ের আওতাভুক্ত করা হয়। এরপর থেকে তাদের কার্যক্রম সবারই জানা। সঠিক সময়ে পরীক্ষা ও রেজাল্ট এখন দু:সাধ্য ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে এর থেকে পরিত্রাণ পেতে দাবি আদায়ে রাস্তায় নামে ৭ কলেজের শিক্ষার্থীরা। যেখানে দুটি চোখ হারায় তিতুমীর কলেজের রাষ্ট্র বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর রহমান।

মানববন্ধনে ১৪-১৫ সেশনের ডিগ্রি শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি তুলে ধরে বলেন, বর্তমান সময়ে আমাদের দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা শেষ করে তৃতীয় বর্ষে অধ্যয়ন করার কথা। কারণ আমাদেরই সেশনের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা দিয়ে দিয়েছে। তারা ১৮ সালের মাঝামাঝি সময়ে তৃতীয় বর্ষের ফাইনাল দেবে বলে প্রায় নিশ্চিত। কিন্তু সেই সময় ঢাবি অধিভুক্তদের দ্বিতীয় বর্ষ পরীক্ষা দিতে হবে।

মানববন্ধনে তারা জানুয়ারির মধ্যে ফরম ফিলাপ ও ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা নিয়ে ১৮ সালের মধ্যেই ডিগ্রি চূড়ান্ত পরীক্ষার দাবি জানায় ঢাবি কর্তৃপক্ষের কাছে। যদি ১০ দিনের মধ্যে তাদের দাবি আদায় না হয় তাহলে আরো কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেওয়া হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, কবি নজরুল কলেজের ছাত্র মো. সোহেল, আবু হানিফ, অমলেন্দু পাল, তিতুমীর কলেজের ছাত্র ফয়সাল, মিঠু, হাসান, ফখরুল, মেহেদী প্রমুখ।

মানববন্ধনের একাত্মতা প্রকাশ করেন বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা। তাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ছাত্র কল্যাণ পরিষদের সভাপতি ও ঢাকা কলেজের ছাত্র বি এম শাহিন (মাস্টার্স), মনোয়ার হোসেন (অনার্স ৪র্থ বর্ষ), ইডেন কলের ছাত্রী জাকিয়া সুমাইয়া (মাস্টার্স), তানিয়া আক্তার (মার্স্টাস) প্রমুখ।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ৪, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এইচ এই লেখাটি ২৭৫৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন