সর্বশেষ
বুধবার ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সেলিম আল দীনের প্রয়াণদিবস আজ

রবিবার, জানুয়ারী ১৪, ২০১৮

Selim-Al-Deen4.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের ১০ম মৃত্য বার্ষিকী আজ। দ্বৈতাদ্বৈতবাদী শিল্পতত্ত্ব, ফিউশন তত্ত্বের প্রবক্তা এবং নিউ এথনিক থিয়েটারের উদ্ভাবনকারী সেলিম আল দীন।

নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের জন্ম ১৯৪৯ সালের ১৮ই আগস্ট ফেনীর সেনেরখিল গ্রামে। ২০০৮ সালের ১৪ জানুয়ারি তার অনুসারী ও শিক্ষার্থীদের কাঁদিয়ে পরপারে যাত্রা করেন কিংবদন্তি এই নাট্যকার।

বাংলাদেশের নাট্যধারায় অভিনব আঙ্গিক সংযোজন ও বিদেশী নাট্যচর্চা থেকে আলাদা করে হাজার বছরের চর্চিত বাংলার ঐতিহ্যবাহী নাট্যআঙ্গিক তুলে ধরেছেন সেলিম আল দীন।

তাঁর হাত ধরে প্রতিষ্ঠিত হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ। সেলিম আল দীনের স্মৃতি বিজড়িত বিভাগের নিজস্ব কক্ষে পড়ে আছে তাঁর লেখা, স্মারক, পোস্টার, ছবি আর প্রিয়জনদের কাছে লেখা গুরুত্বপূর্ণ অনেক চিঠি।

সেলিম আল দীনের জন্ম ও প্রয়াণ বার্ষিকী রাষ্ট্রীয়ভাবে পালন ও তাঁর নিজ গ্রামে প্রতিষ্ঠিত সেলিম আল দীন জাদুঘর ও সেলিম আল দীন কেন্দ্রের সরকারী পৃষ্ঠপোষকতার দাবি তাঁর পরিবারের।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে চির নিদ্রায় শায়িত সেলিম আল দীন। দেশের সব স্তরের শিক্ষা কার্যক্রমের সিলেবাসে সেলিম আল দীনের লেখা যুক্ত করার তাগিদ তার প্রতিষ্ঠিত বিভাগের এ শিক্ষকের।

প্রাচ্য, কীত্তনখোলা, বাসন, কেরামত মঙ্গল, হাত হদাই, যৈবতি কন্যার মন, মুনতাসির ফ্যান্টাসি ও চাকার মতো জনপ্রিয় কিছু নাটকের রচয়িতা সেলিম আল দীন একুশে। চলচ্চিত্র পুরষ্কার পেয়েছেন, পেয়েছেন হাজারো মানুষের অকুণ্ঠ ভালোবাসা।


ঢাকা, রবিবার, জানুয়ারী ১৪, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৩৮২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন