সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৯শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৩ নভেম্বর ২০১৮

জাবিতে শিক্ষার্থী বহিষ্কারের প্রতিবাদে মানববন্ধন

মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩০, ২০১৮

1_0.jpg
জাবি প্রতিনিধি :

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষিকা লাঞ্ছিত করার অভিযোগ এনে এক শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার ও অপর এক শিক্ষার্থীর ফলাফল স্থগিত সুপারিশের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও মৌন মিছিল করেছে শিক্ষার্থীরা।

এছাড়া সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবিতে উপাচার্যের সাথে সাক্ষাৎ ও স্মারকলিপি দিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট সহ শিক্ষার্থীদের দুইটি গ্রুপ।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে পাদদেশে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করে। মানববন্ধনে প্রশাসনের সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করে শিক্ষার্থীরা বলেন, 'শিক্ষক-শিক্ষার্থী উভয় পক্ষ অভিযোগপত্র দিলেও শিক্ষার্থীদের অভিযোগ আমলে না নিয়ে বিনা তদন্তে ছাত্রদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এতে প্রশাসন শিক্ষকদের প্রতিপক্ষ হিসেবে বিবেচনা করেছে আমাদের।'

এ সময় শিক্ষার্থীরা বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার করে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে সমস্যার সুরাহা করার আহ্বান জানান। মানববন্ধন শেষে শিক্ষার্থীদের একটি মৌন মিছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে রেজিস্টার্ড ভবনে গিয়ে শেষ হয়।

এদিকে প্রশাসনের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে বহিষ্কার আদেশ পুনর্বিবেচনার জন্য উপাচার্যের সাথে সাক্ষাৎ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল ছাত্র জোটের নেতৃবৃন্দ। একই দাবিতে উপাচার্যকে স্মারকলিপি জমা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আ ফ ম কামাল উদ্দিন হলের শিক্ষার্থীরা।

স্মারকলিপিতে শিক্ষার্থীদের সাথে ন্যায় বিচার করা হয়নি দাবি করে শিক্ষার্থীরা উল্লেখ করেন, 'ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের শিক্ষকরা ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের মাধ্যমে প্রশাসনকে প্রভাবিত করেছে। ফলে তদন্ত প্রতিবেদন ছাড়াই শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।'

এ সময় তারা শিক্ষার্থীদের অভিযোগ আমলে নিয়ে সুষ্ঠু সমাধানের মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষার্থী সম্পর্ক বজায় রাখার আহ্বান জানান।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় গাড়ি পার্কিং কেন্দ্র করে ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষিকা উম্মে সায়কা ও নাহিন ইসলাম খানের সাথে শিক্ষার্থীর বাকবিতণ্ডার ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীকে ১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়।

পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার দাবি করে বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ করে শিক্ষকরা আন্দোলন শুরু করে। ফলে ১ ফেব্রুয়ারির আগেই এক শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কারসহ শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে শৃঙ্খলা কমিটি। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সচেতন মহলে প্রতিবাদ ও সমালোচনা শুরু হয়েছে।


ঢাকা, মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩০, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৪১২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন