সর্বশেষ
বুধবার ৩০শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৪ নভেম্বর ২০১৮

গোপন শত্রু যখন ওয়াইফাই, ব্যবহারেও সচেতনতা প্রয়োজন

শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১০, ২০১৮

110749WiFi_kalerkantho_pic.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

সার্বক্ষণিক আপডেট থাকতে আমরা ল্যাপটপ, কম্পিউটার, মোবাইল সবকিছুতেই ইন্টারনেট ব্যবহার করি। আর এই ইন্টারনেট সংযোগকে একদম হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে তারবিহীন ওয়াইফাই।

বিশেষজ্ঞদের মতে রাউটার, মডেম থেকে নির্গত ওয়াইফাই রেডিয়েশন শরীরে বেশকিছু সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে।

রাউটার এবং মডেম থেকে ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় ক্ষতিকর তড়িৎচুম্বকীয় তরঙ্গ নির্গত হয়। বাসা কিংবা অফিসে আমরা ওয়াইফাই রাউটার এবং রাউটিং প্রযুক্তি ব্যবহার করি। কিন্তু সাধারণত আমরা সেটা বন্ধ করি না। ফলে ২৪ ঘণ্টাই ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক রশ্মি নির্গত হতে থাকে।

আরেকটি তথ্য, আপনি ওয়্যারলেস রাউটারের যত বেশি কাছাকাছি থাকবেন, আপনার ঝুঁকি ততবেশি।  

ওয়াওফাই রেডিয়েশন থেকে যেসব শারীরিক সমস্যা হতে পারে-

• তরঙ্গ রশ্মির ফলে অনিদ্রা ও ঘুম ঘুম ভাব তৈরি হয়।
• শিশুদের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ব্যহত হয়।
• মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা কমে, ব্রেন টিউমারের ঝুঁকি বাড়ে
• ডিএনএ তে ফ্রাগমেন্টেশন ঘটিয়ে পুরুষের শুক্রাণু নষ্ট করে
• হৃদরোগের ঝুঁকিও বাড়িয়ে দেয়
• গবেষণায় দেখা গেছে, ওয়াইফাই বিকিরণের ফলে নারীদের কর্মশক্তি কমে যায়
• শ্রবণশক্তি ও দৃষ্টিশক্তি কমে যেতে পারে।

ওয়াইফাই ব্যবহারে সচেতনতা

• ঘুমানোর আগে রাউটার, মডেম ও অন্যান্য ইন্টারনেট ডিভাইস বন্ধ করুন
• শিশুদের হাতে ডিভাইস দেওয়ার আগে ফ্লাইট মোডে রাখুন
• শুধুমাত্র প্রয়োজনের সময় ওয়াইফাই অন করুন। কাজ শেষে বন্ধ করে দিন
• শিশু ও গর্ভবতী নারীদের এসব ডিভাইস ও সংযোগ থেকে দূরে রাখুন।


ঢাকা, শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১০, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১৩৫৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন