সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৫ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সিরিজ রক্ষার চাপে জর্জরিত দক্ষিণ আফ্রিকা

বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৮

1503742026_3_1.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

টেস্ট সিরিজের সময় বিরাট কোহলিদের আক্রান্ত দেখাচ্ছিল। পর-পর দুই টেস্টে হারার পরে তারা সমালোচনায় দগ্ধ হচ্ছিলেন। কে জানত, এত দ্রুত পুরো ছবিটাই ওলটপালট হয়ে যাবে?

ওয়ান্ডারার্সে শেষ টেস্ট জেতার পর থেকে কোহলির ভারত চালকের আসনে। নিজেদের দেশে আক্রান্ত দেখাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে। ওয়ান ডে সিরিজ তারা ১-৫  হেরেছে। টি-টোয়েন্টি সিরিজে আজ বুধবার দ্বিতীয় ম্যাচ। সেঞ্চুরিয়নের সুপারস্পোর্ট পার্কে এই ম্যাচ না জিততে পারলে টি-টোয়েন্টি সিরিজও ফসকে যাবে জে পি ডুমিনি-দের হাত থেকে।

দক্ষিণ আফ্রিকা আবার ভারতের মতো দলও নয় যে, তাদের এক জনই অধিনায়ক থাকবে। টেস্ট এবং এক দিনের সিরিজে তাদের অধিনায়ক ছিলেন ফ্যাফ ডুপ্লেসি। কিন্তু চোট পাওয়ায় তিনি সিরিজের বাইরে। তখন অধিনায়ক করা এডেন মার্করাম-কে। আশ্চর্যজনক হচ্ছে, টি-টোয়েন্টি সিরিজে অধিনায়ক করা ডুমিনি-কে শেষ এক দিনের ম্যাচ থেকে বসিয়ে দেয়া হয়েছিল।

এই মুহূর্তে ভারতের সঙ্গে পাল্লা দিতে পারছে না দক্ষিণ আফ্রিকা। দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন ভারতের উপরের দিককার ব্যাটসম্যানরা। অধিনায়ক কোহলি তো ব্র্যাডম্যানকে টপকে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করেছেন। তার সঙ্গে শিখর ধবনও ভালো ফর্মে রয়েছেন। ভারতের মিডল অর্ডার নিয়ে দুশ্চিন্তা থাকলেও তা ঢাকা পড়ে যাচ্ছে কোহলিদের দুরন্ত ফর্মের সৌজন্যে।

দক্ষিণ আফ্রিকার সংসারে সেই রমরমা নেই। এ বি ডিভিলিয়ার্স ছিলেন কিন্তু চোট পেয়ে বাইরে চলে গেছেন। তাদের দেশ জুড়ে রব উঠেছে যে, সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ভীষণই দুর্বল দেখাচ্ছে জাতীয় দলকে। এ রকম ভাঙাচোরা দল নিয়ে ২০১৯ বিশ্বকাপ খেলতে গেলে ভরাডুবি হতে বাধ্য। গ্রেম স্মিথ, ডারিল কালিনানের মতো দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ক্রিকেটারেরা এর আগে কোহলির সমালোচনা করছিলেন। এখন তারাই কোহলির প্রশংসা আর নিজেদের দলের দিকে তোপ দাগতে বাধ্য হচ্ছেন।

ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের থামাতে পারছে না দক্ষিণ আফ্রিকার বোলাররা। তেমনই ভারতীয় বোলারদের সম্পর্কে কুলকিনারা খুঁজে পাচ্ছেন না দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানেরা। ওয়ান ডে সিরিজে তাদের নাকানি-চোবানি খাওয়াচ্ছিলেন দুই ‘রিস্টস্পিনার’ কুলদীপ যাদব এবং যুজবেন্দ্র চহাল। টি-টোয়েন্টির প্রথম ম্যাচে আবার ভুবনেশ্বর কুমারের ‘নাক্‌ল বল’-এর সামনে ধসে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং। এসবের মধ্যে কী ভাবে ডুমিনিরা ঘুরে দাঁড়ানোর মানসিকতা দেখাবেন, সেটাই প্রশ্ন।


ঢাকা, বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ১২২৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন