সর্বশেষ
শনিবার ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৭ নভেম্বর ২০১৮

অনলাইনেই ফোরজি সিম বদলে দিচ্ছে গ্রামীনফোন

রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৫, ২০১৮

7_0.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

দেশে ফোর-জি নেটওয়ার্ক চালুর লাইসেন্স পেয়েছে গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিংক ও টেলিটক। লাইসেন্স পাওয়ার পরপরই দেশের চার অপারেটর ফোর-জি নেটওয়ার্ক আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করে।

এরই প্রেক্ষিতে অনলাইনে অর্ডার প্লেস করার মাধ্যমে বর্তমান সিমটি বদলে একটি ফোরজি সিম দিচ্ছে গ্রামীণফোন। সিম পরিবর্তনের জন্যে অপারেটরটি ১১০ টাকা চার্জ করছে। তার ওপর ডেলিভারি চার্জ হিসেবে ৮০ টাকা নিচ্ছে জিপি।

অনলাইনে সিম ফোরজিতে রূপান্তরের জন্য গ্রাহককে জিপির ওয়েবসাইটে গিয়ে শপ অপশনে যেতে হবে। সেখানেই রয়েছে ফোরজিতে সিম রূপান্তরের অপশন। অপারেটরটি শুধুমাত্র ঢাকার গ্রাহকদের জন্য অনলাইনে অর্ডার প্লেস করে সিম ফোরজিতে রূপান্তরের সুযোগ দিচ্ছে।

সিম ফোরজিতে রূপান্তর করলে সাত দিন মেয়াদি দেড় জিবি ডেটাও দিচ্ছে গ্রামীণফোন। এছাড়াও অপারেটরটি তাদের স্টার গ্রাহকদের জন্য বিনামূল্যে সিম রিপ্লেসমেন্ট অফার দিচ্ছে।

আগ্রহী গ্রাহক যে সিমটি ফোরজিতে রূপান্তর করতে চান প্রথমে সেই নম্বর, তারপর বিকল্প একটি যোগাযোগ নম্বর এবং শেষ পর্যায়ে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর দিতে হবে। এরপর সেটি কিনতে পারবেন গ্রাহকরা। তবে অনলাইনে সিম ফোরজিতে রূপান্তর করলেও বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন করছে জিপি।

এ ক্ষেত্রে তাদের প্রতিনিধি যখন সিমটি দিতে যাবেন তখন সেটি আবারও মিলিয়ে নিচ্ছেন। অপারেটরটি জানুয়ারির শেষ পর্যন্ত প্রায় ৭২ লাখ সিম ফোরজিতে রূপান্তর করেছে। আর এখন দিনে ৫০ থেকে ৬০ হাজার সিম ফোরজিতে রূপান্তরিত হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন গ্রামীণফোনের ডেপুটি সিইও এবং প্রধান বিপণন কর্মকর্তা ইয়াসির আজমান।

তিনি বলেন, এখন থেকে বাজারে যে সিমই তারা দিচ্ছেন সবই ফোরজি এনাবেল। আর সে কারণে ফোরজিতে সিম রূপান্তরের হার অতিদ্রুত বাড়ছে।

ডিসেম্বরের শেষ পর্যন্ত অপারেটটির ছয় কোটি ৫০ লাখ কার্যকর সিম আছে যার মধ্যে ২ কোটি ৩১ লাখ ১৩ হাজার সিম আছে থ্রিজি কানেকটেড। আর ৯৮ লাখ ৫২ হাজার সিম আছে যারা টুজির ইন্টারনেট ব্যবহার করে। সূত্র: সময়টিভি


ঢাকা, রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৫, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৩২৮১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন