সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৮ই কার্তিক ১৪২৫ | ২৩ অক্টোবর ২০১৮

বোর্ডভিত্তিক পৃথক প্রশ্নে হবে এইচএসসি পরীক্ষা

শুক্রবার, মার্চ ৯, ২০১৮

6.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

পরীক্ষা শুরুর ২০ মিনিট আগে বোর্ড থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বা কেন্দ্র সচিবকে জানিয়ে দেওয়া হবে কোন সেট প্রশ্নে পরীক্ষা নেওয়া হবে।

সারা দেশে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগামী ২ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা বোর্ডভিত্তিক আলাদা প্রশ্নে নেওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

একই সঙ্গে আগের চেয়ে বেশি সেট প্রশ্ন ছাপানো, পরীক্ষা শুরুর ২০ মিনিট আগে বোর্ড থেকে কেন্দ্র সচিবকে প্রশ্ন সেট কোড জানিয়ে দেওয়া, বিজি প্রেস থেকে প্রশ্ন ছাপিয়ে বিশেষ প্যাকেটে কেন্দ্রে পৌঁছানোসহ বেশকিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্রেস থেকে পরীক্ষার কেন্দ্র পর্যন্ত প্রশ্নের নিরাপত্তায় পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক আলাদা প্যাকেট করা হবে। প্যাকেটের ওপর বিশেষায়িত প্লাস্টিক লাগানো হবে (নিরাপত্তা ডিভাইস)। কেউ প্যাকেট খুললেই সঙ্গে সঙ্গে কেন্দ্রীয় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ কক্ষে বার্তা যাবে।

প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে বুধবার শিক্ষামন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উচ্চপর্যায়ের এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে এসব বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। আরেকটি বৈঠক করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বৈঠক শেষে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন বলেন, বোর্ডগুলো নিজেদের প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। পরীক্ষার আগেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, এসএসসি পরীক্ষায় আধাঘণ্টা আগে প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ উঠেছে। এ অভিজ্ঞতা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় আরেকটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরীক্ষার্থীরা রুমে ঢোকার পরে কোন সেট প্রশ্নে পরীক্ষা হবে, তা নির্ধারণ করে দেওয়া হবে। বর্তমানে দুই সেট প্রশ্ন ছাপানো হলেও এইচএসসি পরীক্ষায় আরও বেশি সেট প্রশ্ন ছাপার চিন্তাভাবনা করছি।

তিনি আরও বলেন, পরীক্ষার আধাঘণ্টা আগে পরীক্ষার্থী হলে প্রবেশ না করলে তাকে আর ঢুকতে দেওয়া হবে না। পরীক্ষার হলে স্মার্ট মোবাইলফোন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞার আগের সিদ্ধান্ত কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করা হবে।  


ঢাকা, শুক্রবার, মার্চ ৯, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৪৬৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন