সর্বশেষ
বুধবার ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ঠাকুরগাঁওয়ে হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

রবিবার, মার্চ ১১, ২০১৮

18.jpg
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :

পারিবারিক ও জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হত্যা মামলায় আ. খালেক নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের দণ্ডাদেশ দেয়া হয়।

আজ রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জর্জ আদালতের বিচারক হায়দার আলী এ রায় প্রদান করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আ. খালেক ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গি উপজেলার মেছনী গ্রামের রহিম উদ্দিনের ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, বালিয়াডাঙ্গি উপজেলার আ. খালেকের সহিত এই গ্রামের শাহ আলমের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ পারিবারিক ও জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। ২০১২ সালের ৯ আগস্ট, শাহ আলমের বাবা আ. হক তাহার ঘরে ঘুমায় ছিল। আ. খালেক ছুড়ি দিয়ে আ. হকের বুকে উপুর্যপুরি আঘাত করে পালিয়ে যায়।

এ সময় আ: হক চিৎকার করিলে বাসার ও এলাকার লোকজন তাকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর আ. হক মারা যায়।

পরে রাতে শাহ আলম ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী থানায় আ. খালেককে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বালিয়াডাঙ্গী থানার এস.আই আনোয়ারুল মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও আলামত জব্দ করেন তদন্ত করে চার্জশীট প্রদান করেন।

দীর্ঘদিন মামলার বিভিন্ন সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ ও পুলিশের চার্জশীট মোতাবেক আ. খালেক দোষী প্রমাণিত হওয়ায় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জর্জ আদালতের বিচারক হায়দার আলী তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকার অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করার রায় প্রদান করেন।


ঢাকা, রবিবার, মার্চ ১১, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ২৬৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন