সর্বশেষ
সোমবার ৯ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

বাড়ির নকশা অনুমোদনে করণীয়

রবিবার, এপ্রিল ৮, ২০১৮

6.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

ঢাকা শহরে এক খন্ড জমি এখন সোনার চেয়েও মূল্যবান। সেই সোনার জমিতে বাড়ি নির্মাণের জন্য সর্ব প্রথমে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) থেকে নকশা অনুমোদন করিয়ে নিতে হয়।

জেনে নিন ঢাকা সিটিতে বাড়ি নির্মাণের পূর্বে রাজউক থেকে বাড়ির নকশা অনুমোদনে করণীয় সম্পর্কে-

# জমিতে বাড়ি নির্মাণের পূর্বে একজন দক্ষ ব্যক্তি দ্বারা ইন্টারনেটের মাধ্যমে জমির দাগ নম্বর এবং মৌজা নম্বর দিয়ে যাচাই করে দেখতে হবে যে জমিটি রাজউকের ড্যাপ অর্থাৎ ডিটেইল এরিয়া প্লানের কোন শ্রেণী ভুক্ত।

ড্যাপে যদি জমির শ্রেণি আবাসিক হয়ে থাকে কেবল তখনি আপনি উক্ত জমিতে আবাসিক বাড়ি নির্মাণের অনুমোদন পাবেন।

# জমির শ্রেণী নিশ্চিত হওয়ার পরে এবার রাজউকের নির্ধারিত ফরমে ভূমি ব্যবহারের ছাড়পত্রের বা NOC এর জন্য রাজউকের নিকট আবেদন করতে হবে।

ব্যক্তিমালিকানাধীন বাড়ির নকশা অনুমোদন করতে রাজউকে যেসব কাগজপত্র জমা দিতে হবে তা হলো, জমি রেজিস্ট্রেশনের ফটোকপি, খাজনা, জমা, খারিজ, CS, RS, মৌজা, থানা নাম, অঙ্গীকার নামা, নির্ধারিত ফর্মে ছাড়পত্রের আবেদন ও উক্ত ফর্ম অনুযায়ী কাগজপত্র ও দলিলাদি দাখিল করতে হবে। এই ফরমটি অবশ্যই একজন দক্ষ ব্যক্তি দ্বারা পূরণ করাবেন।

ভূমি ব্যবহারের ছাড়পত্রের ফরমের সাথে রাজউকের নির্ধারিত ফি প্রদানপূর্বক জমির কাগজপত্র এবং সাইট প্ল্যানের প্রিন্ট কপি জমা দিতে হবে।

# আবেদনের পর রাজউকের জরিপ কর্মকর্তারা জমিতে পরিদর্শন করবেন। কর্মকর্তাদের রিপোর্ট পজেটিভ হলে দ্রুত সময়ের মধ্যে রাজউক থেকে ভূমি ব্যবহারের ছাড়পত্র প্রদান করবে।

# ভূমি ব্যবহারের ছাড়পত্র পাওয়ার পর এবার জমির মাটি (সয়েল) টেস্ট করাতে হবে। সয়েল টেস্ট রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে পরবর্তী পদক্ষেপে যেতে হবে।

# এরপর দক্ষ ইঞ্জিনিয়ার দিয়ে বাড়ির নকশা যেমন- স্ট্রাকচারাল ডিজাইন, লে আউট ডিজাইন, প্লাম্বার ডিজাইন ইত্যাদি নকশাগুলো করাতে হবে।

# সবগুলো নকশা প্রস্তুত করে পুনরায় রাজউক থেকে উক্ত নকশাগুলো পাশ করাতে হবে। নকশা চূড়ান্তভাবে পাশ করাতে রাজউকের নির্ধারিত ফরমে পুনরায় আবেদন করতে হবে এবং সাথে নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে।

# রাজউকের ইঞ্জিনিয়াররা আপনার ডিজাইনগুলো পরীক্ষা নিরীক্ষা করে সন্তুষ্ট হলে এবং সব কিছু ঠিক থাকলে আপনার চাহিদা মোতাবেক বাড়ির নকশা অনুমোদন প্রদান করবে।

 


ঢাকা, রবিবার, এপ্রিল ৮, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৮৭৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন