সর্বশেষ
রবিবার ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৮ নভেম্বর ২০১৮

৫ কারণে হতে পারে পুরুষের হাড় ক্ষয়

মঙ্গলবার, মে ১৫, ২০১৮

8.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

অস্টিওপোরোসিস বা হাড় ক্ষয় বলতে বোঝায় ছিদ্রযুক্ত হাড়। নারীদের এই রোগের ঝুঁকি বেশি থাকলেও পুরুয়েরা ঝুঁকিমুক্ত নয়। পঞ্চাশোর্ধ্ব প্রতি ৩ জন নারীর ১ জন এবং প্রতি ৫ জন পুরুষের ১ জন এই অস্টিওপোরোসিসজনিত হাড় ভাঙার শিকার হয়।

হাড়ে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ কমে যায়, হাড়ের স্বাভাবিক গঠন নষ্ট হয়ে যায় এবং ক্রমেই হাড় ভঙ্গুর হয়ে পড়ে। ফলে হাড় ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা বহুগুণে বেড়ে যায়। হাড়ের এই ক্ষয় সাধারণত নীরবে এবং ক্রমবর্ধমানভাবে ঘটতে থাকে।

সাধারণত প্রাথমিক ধাপে এর কোনো লক্ষণ পরিলক্ষিত হয় না। অস্টিওপোরোসিসে কোমরের হাড়, মেরুদণ্ড ও হাতের কবজির হাড় সবচেয়ে বেশি ভঙ্গুর হয়ে থাকে।

পুরুষদের অস্টিওপরোসিসে আক্রান্ত হওয়ার কিছু কারণ রয়েছে। জেনে নিন পুরুষদের অস্টিওপরোসিসে আক্রান্ত হওয়ার ৫টি কারণ-

অতিরিক্ত মদ্যপান:
অতিরিক্ত মদ্যপান লিভারের ক্ষতি করে। মদ্যপান হাড়ের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই মদ্যপান এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

ধূমপান:
ধূমপান হাড়কে পাতলা করে দেয়। আর এতে হাড় ক্ষয়ের প্রবণতা বাড়ে। তাই অস্টিওপরোসিস প্রতিরোধে ধূমপান এড়িয়ে চলুন।  

বয়স:
বয়স বাড়তে থাকলে পুরুষদের বিভিন্ন রোগ হওয়ার প্রবণতা বাড়ে। ৫০ বছরের পর থেকে পুরুষদের হাড়ের ঘনত্ব কমতে থাকে। কারণ, এ সময় শরীর পুনরায় হাড় গঠন করতে পারে না।

ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি:
হাড় শক্ত করার জন্য ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি প্রয়োজন। এর ঘাটতি হলেও হাড় ক্ষয়ের ঘটনা ঘটে। দুধ ও দুগ্ধজাত খাবারে ক্যালসিয়াম থাকে। তাই এ ধরনের খাবার খেতে হবে। আর সূর্যের আলো ভিটামিন ডি-এর ভালো উৎস। সূর্যের আলোর কাছাকাছি যাওয়াও প্রয়োজন।

ব্যায়াম না করা:
নিয়মিত ব্যায়াম না করা হাড় ফ্যাকচারের প্রবণতা বাড়ায়। প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিটের ব্যায়াম হাড়কে শক্ত করে। এ ক্ষেত্রে হাঁটা, দৌঁড়ানো ইত্যাদি করতে পারেন।


ঢাকা, মঙ্গলবার, মে ১৫, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৭০৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন