সর্বশেষ
বুধবার ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ঈশ্বরগঞ্জে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে স্ত্রীকে হত্যা করল স্বামী

শনিবার, জুন ২, ২০১৮

ishwarganj-480-thumbnail.jpg
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে স্ত্রীকে হত্যা করেছে এক স্বামী। শনিবার (২জুন) সকাল ৮ টার দিকে উপজেলা সরিষা ইউনিয়নের মহেশপুর গ্রামে ওই ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় ও ঈশ্বগঞ্জ থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সরিষা ইউনিয়নের মহেশপুর গ্রামের মঞ্জুরুল হকের ছেলে জহিরুল হকের (৩০) এর সাথে মাইজবাগ ইউনিয়নের কুমুড়িয়ার চর গ্রামের আব্দুল খালেকের মেয়ে মুর্শিদা বেগমের (২৫) বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে তামিম (৩) নামের এক ছেলে সন্তান রয়েছে। গত শুক্রবার জহিরুলের বাড়িতে বেড়াতে আসে তার শাশুড়ী ও শালিকা। শনিবার সকালে তাদের জন্য রান্না ঘরে পিঠা বানাতে থাকে মুর্শিদা। এসময় সকাল ৮টার দিকে মুর্শিদাকে বসত ঘরে ডেকে নিয়ে যায় স্বামী জহিরুল। এক পর্যায়ে পাশের ঘরে থাকা ছেলে সন্তান তামিম কান্না শুরু করলে মুর্শিদার ছোট বোন মদিনা তার বোন মুর্শিদাকে ডাক দিলে কিছুক্ষণ পর ঘরের দরজা খুলে বের হয়ে চলে যায় জহিরুল। পরে ঘরে ঢুকে বিছানার ওপর মুর্শিদার গলায় ওড়না প্যাঁচানো এবং নাক দিয়ে রক্ত বের হয়ে আছে দেখতে পায় মদিনা। এ ঘটনা দেখে মদিনা চিৎকার করলে বাড়ির লোকজন ঘরে ঢুকে মুর্শিদার মৃত লাশ দেখতে পায়। জহিরুলের হাতে মুর্শিদা খুন হয়েছে টের পেরে জহিরুলের বাবা মা ভাইয়েরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল আলম খান জানান, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা যায়নি।


ঢাকা, শনিবার, জুন ২, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৪৪১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন