সর্বশেষ
শনিবার ৭ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

বাংলাদেশে ২৩ টাকা মজুরির জার্সি যুক্তরা‌জ্যে ১৭,৬৯০ টাকা!

মঙ্গলবার, জুন ৫, ২০১৮

535cba2c1b316226202a05e4e70eb934-5b169ee9d8b8e.jpeg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

আসন্ন ফুটবল বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড দলের জার্সি আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড নাইকি'র মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে তৈরি করা হয়েছে। ইংল্যান্ডের বাজারে যে পোশাক ১৭ হাজার ৯২০ টাকায় (১৬০ পাউন্ড) বিক্রি হচ্ছে, এর উৎপাদন খরচ হিসেবে বাংলাদেশের শ্রমিকরা ঘণ্টায় মজুরি পেয়েছেন মাত্র ২৩ টাকা (২১ পেন্স)। এমনটাই উঠে এসেছে যুক্তরাজ্যের বহুল প্রচারিত সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের এক প্রতিবেদনে।

ইংল্যান্ড ফুটবল দলের মনোগ্রাম সম্বলিত এই অফিসিয়াল জার্সিটি তৈরি করা হয়েছে ঢাকা ইপিজেডের একটি গার্মেন্ট থেকে। সেখানে শ্রমিকরা মাত্র ১৮৮ টাকা (১ দশমিক ৬৮ পাউন্ড) দৈনিক মজুরিতে কাজ করেন।

রাশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ ফুটবলে ইংল্যান্ড দলের খেলোয়াড়দের পোশাকের আদলে তৈরি এই শার্ট ও শর্ট ১৬০ পাউন্ড দিয়ে বাজার কিনতে পারবেন সমর্থকরা। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় ১৭ হাজার ৬৯০ টাকা।

প্রতিবেদনে প্রশ্ন তোলা হয়, ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন এই পোশাক কেনার ব্যাপারে সার্বিক দিকগুলো বিবেচনায় নিয়ে পর্যাপ্ত বিচার বিশ্লেষণ করেছে কিনা? কেননা, এটি ইংল্যান্ড ফুটবল টিমকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে পারে।

এই পোশাক কোথা থেকে তৈরি করা হয়েছে তা তদন্তের জন্য ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কনজারভেটিভ পার্টির ডিজিটাল, কালচার, মিডিয়া এবং স্পোর্টস কমিটির সদস্য সায়মন হার্ট এমপি।

তিনি বলেন, ‘খেলোয়াড় এবং ভক্তদের প্রতি যেমন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের দায়বদ্ধতা রয়েছে, ঠিক একইভাবে বাধ্যবাধকতা রয়েছে বাংলাদেশের পোশাক শ্রমিকদের প্রতি, যারা তাদের জন্য এই পোশাক তৈরি করেন।’

একই কমিটির আরেক সদস্য জো স্টিভেনস এমপি বলেন, ‘বিশ্বকাপের সঙ্গে ইংল্যান্ড দলের পোশাকসহ যেকোনও কর্মকাণ্ডের প্রতি গভীর দৃষ্টিভঙ্গি দেখানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, যা আমাদের দেশের জন্য গর্বের বিষয়। কিন্তু কর্মক্ষেত্রে যদি কোনও শ্রমিক শোষিত হয় তাহলে আমাদের গর্বিত হওয়া বেশ কঠিন হয়ে যাবে।’

ক্লিন ক্লথস ক্যাম্পেইন, যারা বিশ্বব্যাপী গার্মেন্টস শিল্পের অবস্থার উন্নয়নে চেষ্টা করে যাচ্ছেন তারা বলেছেন, ‘বাংলাদেশে পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মাসিক বেতন ৫ হাজার ৩০০ টাকা (৪৭ পাউন্ড)। এটি বিশ্বের যেকোনও দেশের গার্মেন্টস শ্রমিকদের তুলনায় অনেক কম। তাদের বেতন মৌলিক চাহিদা পূরণে ব্যর্থ এবং খুব কম সংখ্যক শ্রমিক তাদের নিজেদের এবং পরিবারকে ভালো জীবন দিতে সক্ষম।’ গ্রুপটি বলছে, বাংলাদেশে যুতসই মজুরি ন্যূনতম ৩৭ হাজার ৬৬১ টাকা (৩৩৫ পাউন্ড) হওয়া উচিত।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ইংল্যান্ড দলের সমর্থক এবং বাংলাদেশের গার্মেন্টস শ্রমিকদের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করেছে এই পোশাকগুলো, যারা তৈরি করেন এবং যারা পরেন। মাঝখানে নাইকি শ্রমিকদের কম মজুরি দিয়ে ইংল্যান্ড দলের সমর্থকদের কাছে বেশি দামে বিক্রি করে বাড়তি মুনাফা অর্জন করছে। সুতরাং নাইকের প্রতি ওই সমর্থকদেরই দাবি তোলা উচিত, যাতে তারা তাদের ব্যবসার ধরন বদলায়।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন নাইকি'র সঙ্গে করা চুক্তি এ বছরের আগস্ট থেকে আরও ১২ বছর বাড়িয়েছে। -বাংলাট্রিবিউন


ঢাকা, মঙ্গলবার, জুন ৫, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৩৫৯৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন