সর্বশেষ
শুক্রবার ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৬ নভেম্বর ২০১৮

চুলকানি থেকে ‘বাঁচতে’ বাবা-মা’কে হত্যার পর তরুণীর আত্মহত্যা!

শুক্রবার, জুন ২২, ২০১৮

kkkkkk.jpg ছবি উৎস : প্রতীকী ছবি
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাবা-মায়ের দ্বারাই চুলকানি রোগে আক্রান্ত হয়েছেন এমন ধারণা থেকে তাদের হত্যার পর নিজে আত্মহত্যা করেছেন এক তরুণী। সম্প্রতি হংকংয়ে এমন ঘটনা ঘটেছে। খবর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এবেলা।
 
সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, হংকংয়ের বাসিন্দা ওই তরুণীর নাম পাং চিং-ইউ। গেল সোমবার তিনি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নিজের বাবা-মা’কে হত্যা করেন। তার পর নিজে বিষাক্ত গ্যাস সেবন করে আত্মঘাতী হন।

কিন্তু কেন এমন চরম পথ বেছে নিতে হল পাং চিং-ইউকে? জানা গেছে, তিনি বেশ কিছুদিন যাবৎ চর্মরোগে ভুগছিলেন। যার ফলে প্রবল চুলকানি ও জ্বলুনিতে অস্থির থাকতে হচ্ছিল তাকে। চামড়া জুড়ে বিশ্রী লালচে দাগ। চিকিৎসা চললেও মিলছিল না রেহাই।

নিজের ব্লগে কয়েকদিন আগেই ওই যুবতী লেখেন— তিনি জানতে পেরেছেন, ওই রোগ বংশানুক্রমিক। অর্থাৎ এই অস্বস্তির জন্য যে তার বাবা-মা’ই পরোক্ষে দায়ী, সেই ধারণা তার মধ্যে স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল। তিনি সে কথা স্পষ্ট করে লিখেছিলেন। জানিয়েছিলেন, এমন চামড়ার অসুখে ভোগা দম্পতির কখনই উচিত নয় সন্তানের জন্ম দেয়া। এর পরই তিনি আত্মঘাতী হয়ে ওঠেন।


ঢাকা, শুক্রবার, জুন ২২, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১১৭৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন