সর্বশেষ
শুক্রবার ৬ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ই-মনিটরিং প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত পরিবর্তন আনবে

বুধবার, জুলাই ১৮, ২০১৮

5.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

নতুন প্রবর্তিত ই-মনিটরিং পদ্ধতিতে স্কুলগুলোকে শক্তিশালী পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মানের পরিবর্তন আনতে সরকারকে সহযোগিতা করবে।

গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার একজন সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম বলেন, 'ইতোপূর্বে স্কুলগুলো ম্যানুয়ালি পর্যবেক্ষণ করা হলেও বর্তমানে এই ক্ষেত্রে অ্যাপস্ ব্যবহার করা হচ্ছে যা আমাদের কাজকে সহজ করে তুলেছে।'

তিনি আরো বলেন, 'আমরা স্কুলগুলো থেকে তথ্য সংগ্রহ করি এবং সঙ্গে সঙ্গে সেগুলো আপ-লোড করি যাতে করে সংশ্লিষ্ট সকলে এ সংক্রান্ত তথ্য সম্পর্কে অবগত হতে পারেন।'

শিক্ষা কর্মকর্তারা স্কুলগুলো পরিদর্শনের সময় তথ্যসমূহ আপলোড করেন এবং তা তথ্য ডিরেকটরেট অব প্রাইমারি এডুকেশন (ডিপিই)-এর ওয়েবসাইটে সরাসরি চলে যায়। প্রদত্ত তথ্যের ভিত্তিতে জেষ্ঠ্য কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিক ভাবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারেন।

জাহিদুল বলেন, 'প্রাথমিক শিক্ষায় মৌলিক পরিবর্তন হয়েছে। একবার স্কুলগুলোর তথ্য আপলোড করা হলে প্রত্যেকে সেগুলো দেখে সমস্যার সমাধানের পদক্ষেপ নিতে পারে, যা প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার গুণগত মন নিশ্চিত করতে সহায়তা করছে।'

উল্লেখ্য, ডিজিটাল মনিটরিং সাধারণভাবে ই-মনিটরিং হিসেবে পরিচিত। এ পদ্ধতিতে এনড্রোয়েডের মাধ্যমে পর্যবেক্ষণ করা হয়। আন্তর্জাতিক এনজিও সেভ দ্য চিলড্রেন ও ডিপিই যৌথভাবে প্রচলিত পর্যবেক্ষণ পদ্ধতির দ্রুত উন্নয়নের মাধ্যমে এটি চালু করে। মাঠ পর্যায়ের শিক্ষা কর্মকর্তারা স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটের মাধ্যমে সঠিক স্কুল পর্যক্ষেণের ডাটা সংগ্রহ করে। বিভিন্ন প্রশাসনিক ক্ষেত্রে ওয়েব ভিত্তিক স্কুল মনিটরিং ফাইন্ডিংসের সারসংক্ষেপ ও বিশ্লেষণের প্রাপ্তি সহজ হয়ে উঠেছে।


ঢাকা, বুধবার, জুলাই ১৮, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৮২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন