সর্বশেষ
শনিবার ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৭ নভেম্বর ২০১৮

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের তিন শতাধিক গণমাধ্যম

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৬, ২০১৮

49247-1534441120.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের তিন শতাধিক গণমাধ্যম। তার ‘কিছু গণমাধ্যম আমেরিকান জনগণের শত্রু’ মন্তব্যের নিন্দা জানিয়ে সম্পাদকীয় লেখার অঙ্গীকার করেছে গণমাধ্যমগুলো।

‘দ্য বোস্টন গ্লোব’র নেয়া এই উদ্যোগে ‘দ্য নিউইয়র্ক টাইমস’সহ ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের জেতা অঙ্গরাজ্যগুলোর বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম যোগ দিয়েছে।

গত বুধবার(১৫ আগস্ট ২০১৮) ‘দ্য বোস্টন গ্লোব’র সম্পাদকীয় বোর্ড একটি অনলাইন পোস্টে ট্রাম্পকে ‘বারবার গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ওপর আক্রমণকারী’ হিসেবে অভিযোগ করে।

এতে বলা বলা হয়, গণমাধ্যমের সত্য বলার স্বাধীনতার ওপর নির্ভর করে আমেরিকা মহিমা। গণমাধ্যমকে জনগণের শত্রু বলে উল্লেখ করা আমেরিকায় প্রচলিত প্রথাগুলোর বিপরীত। এমনকি দুই শতকেরও বেশি সময় ধরে বিদ্যমান নাগরিকদের সঙ্গে গণমাধ্যমের চুক্তির জন্য বিপজ্জনক এটি।

ট্রাম্প বিরোধী এই পদক্ষেপের বিষয়ে হোয়াইট হাউজের কোনও দায়িত্বশীল কর্মকর্তা মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে রক্ষণশীল ওয়েবসাইট ‘টাউনহল ডট কম’র কলামিস্ট টম ট্র্যাডাপের মতে, গণমাধ্যমগুলো ষড়যন্ত্রে অংশ নিচ্ছে।

তার ভাষ্য, কে কী ভাববে এবং কী করবে তা আমি অনুমান করে বলতে পারবো না। কিন্তু আমি ১৬ অগাস্ট কোনও গণমাধ্যমের জন্য একটি মুদ্রাও ব্যয় করবো না।

ট্রাম্প প্রায়ই গণমাধ্যমের সঙ্গে বিরোধী দলের মতো আচরণ করেন এবং তার অপছন্দের প্রতিবেদনগুলোকে ‘ভুয়া খবর’ বলে উল্লেখ করেন।

উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট একটি টুইট বার্তায় বলেন, ভুয়া গণমাধ্যম ‘দ্য নিউইয়র্ক টাইমস’, ‘এনবিসি নিউজ’, ‘এবিসি নিউজ’, ‘সিবিএস’ ও সিএনএন আমার নয়, আমেরিকান জনগণের শত্রু।

বৃহস্পতিবার(১৬ আগস্ট ২০১৮) সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৬, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস এ এই লেখাটি ৩৪৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন