সর্বশেষ
বুধবার ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ২১ নভেম্বর ২০১৮

অর্জুনের ওপর ক্ষুব্ধ সালমান, নেপথ্যে মালাইকা!

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২৩, ২০১৮

NID-0000000000010529.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

গত বছরই আরবাজ খানের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে গেছে মালাইকা আরোরার। কী কারণে সালমান খানের ভাই আরবাজ খানের সঙ্গে মালাইকা অরোরার বিচ্ছেদ হয়েছে, সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি। মুখ খোলেনি কোনও পক্ষই।

তবে বলিউড টাউনের একাংশের খবর, আরবাজ খানের রোজগার এবং তার সামাজিক অবস্থান নিয়ে নাকি আপত্তি রয়েছে মালাইকার। অভিযোগ, ছেলে আরহানের খরচ মেটাতেও পারেন না আরবাজ খান। আর সেই কারণেই নাকি আরবাজ খানের পাশ থেকে ক্রমশ দূরে সরতে শুরু করেন মালাইকা অরোরা।

অন্যদিকে আরও একটি সূত্রের দাবি, আরবাজের সঙ্গে সম্পর্ক যখন একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকে, সেই সময় অর্জুন কাপুরের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান মালাইকা। মালাইকার বাড়ির আশপাশে নাকি মাঝে মধ্যেই দেখা যেত অর্জুন কাপুরকে। যা সংবাদমাধ্যমের নজর এড়ায়নি। কিন্তু, মালাইকার সঙ্গে অর্জুনের ঘনিষ্ঠতা নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিল খান পরিবার। বিষয়টি ভালভাবে মেনে নেননি অর্জুনের বাবা বনি কাপুরও।

অর্জুন যাতে মালাইকার কাছ থেকে দূরে সরে যান, সে বিষয়ে তাকে বার বার সাবধান করতে শুরু করেন বনি কাপুর। শুধু তাই নয়, অর্জুন মালাইকার সখ্যতার জেরে সালমানের রোষানলে পড়তে পারেন বনির ছেলে। যা অর্জুনের ক্যারিয়ারের জন্য একেবারেই ভাল নয়। আর সেই কারণেই মালাইকার কাছ থেকে অর্জুন কাপুরকে বার বার দুরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ দেন বনি কাপুর।

বাবার কথা শুনে শেষ পর্যন্ত মালাইকা অরোরার সঙ্গে বিচ্ছেদ বন্ধুত্বে ছেদ টানেন অর্জুন কাপুর। যদিও, অর্জুন দূরে সরে গেলেও, মালাইকার সঙ্গে বিয়ে টিকিয়ে রাখতে পারেননি আরবাজ খান। শুধু তাই নয়, মালাইকার সঙ্গে অর্জুনের এক সময়ের সম্পর্ক প্রভাব ফেলে বনি-পুত্রের ক্যারিয়ারেও। যার উদাহরণ পাওয়া যায় সোনাম কাপুরের বিয়েতে।

সোনাম-আনন্দের রিসেপশনে হাজির হয়ে বনি কাপুরের সঙ্গে সালমান খান সৌহার্দ্য বিনিময় করলেও, অর্জুন কাপুরকে এড়িয়ে যান তিনি।বনি কাপুরের পাশে দাঁড়িয়ে থাকলেও, অর্জুনের সঙ্গে সেই দিন একবারও বাক্য বিনিময় করেননি বলিউড ‘ভাইজান’।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২৩, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৪৬৯১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন