সর্বশেষ
সোমবার ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৯ নভেম্বর ২০১৮

পর্যটকের ভিড় ভোলার তেঁতুলিয়া রিভার ভিউ পার্কে

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮

Pic2.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

মনোরম পরিবেশ, নদীর ঢেউ, বাহারি ডিজাইনে পার্কের নকশা, কোন প্রবেশ ফি না থাকা, নিরাপত্তার ব্যবস্থাসহ সূর্যাস্ত দেখা যায়। এই অপরূপ সৌন্দর্যের কারণে পর্যটকদের আকর্ষণের কেন্দ্র বিন্দুতে পরিণত হয়েছে তেঁতুলিয়া রিভার ভিউ পার্ক। ফলে প্রতিনিয়ত ভিড় করছে দেশ বিদেশী দর্শনার্থীরা। নানা আকর্ষণের কারণে সৌন্দর্য পিপাসু মানুষ তার পরিবার ও প্রিয়জনের সাথে সময় কাটাতে চলে আসছে এই পার্কটিতে। ভোলা সদর উপজেলা অন্তর্গত উপশহর বাংলাবাজারের দক্ষিণ দিঘলদী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড কোড়ালিয়া গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া তেঁতুলিয়া নদী পাড়ে নির্মিত হয়েছে এ ‘তেঁতুলিয়া রিভার ভিউ’।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের গ্রামের বাড়ীর ঠিক পাশেই তেঁতুলিয়া পাড়ে নির্মিত হয়েছে ‘তেঁতুলিয়া রিভার ভিউ’। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ভোলায় আসলে বাবা-মা এর কবর জিয়ারত করে অবসর সময় কাটানোর জন্য যান এখানে আসেন।

নদী বাধের কাজে ব্যবহৃত ব্লককে কাজে লাগিয়ে বাহারি সাজে সাজানো হয়েছে এ ‘তেঁতুলিয়া রিভার ভিউ পার্কটি।’ সারিবদ্ধভাবে ব্লকের উপর আবার ব্লক বসিয়ে ৩টি করে সারিবদ্ধভাবে সাজিয়ে তা সাদা, লাল ও হলুদ রঙে রাঙিয়ে সাজানো হয়েছে বাহারি রূপে। তার উপর  পরিবারসহ বসা ও বসে কথা বলার জন্য রয়েছে ছাতা ও টেবিল চেয়ারের ব্যবস্থা।

তাছাড়া ছবি তোলার জন্য ও একটি চমৎকার জায়গা আছে পার্কটিতে। তাই প্রতিদিন এখানে দেখা মিলবে ছবি তুলতে আসা দর্শনার্থীদের।

সানজিদা হোসেন এশা বলেন, এখানে নিরাপত্তা জনিত কোন সমস্যা নেই। যে যার যার মত সময় কাটাচ্ছে। পার্কটি আমাকে মুগ্ধ করেছে।

তেঁতুলিয়া রিভার ভিউতে ঘুরতে আসা এম শাহরিয়ার জিলন জানান, এখানে এসে প্রকৃতির নির্মল বাতাস, নদীর কলকলানি আমায় মুগ্ধ করেছে। ভোলার কোন পর্যটন কেন্দ্র থেকে এটি কম নয় বরং অন্যান্য স্থানের থেকে এটি অপরূপ রূপের অধিকারী।

আনোয়ার হোসেন জানান, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের সাথে মনোমুগ্ধকর পরিবেশ মানুষের সব ক্লান্তি, অবসাদ দূর করে দেয়। তাই এখানে আসি। এখানে যদি কোন থাকার ব্যবস্থা করা হয় তবে অনেক পর্যটকের এখানে এসে প্রকৃতির পাশাপাশি থাকার ইচ্ছা পূরণ হবে।

পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসা ভোলা বিয়ে বাজারের কর্ণধার মনিরুল ইসলাম জানান, সারা সপ্তাহ কাজে ব্যস্ত থাকি পরিবারের সাথে সময় কাটানোর মত পর্যাপ্ত সময় হয়ে উঠে না। কিন্তু ছুটির দিনে পরিবারসহ এখানে এসে সময় কাটাতে ভালো লাগে। ছেলে, মেয়ে, বউও খুশি।

ভোলা চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, তেঁতুলিয়া পাড়ের এ ‘তেঁতুলিয়া রিভার ভিউ পার্ক’ ইতিমধ্যে জমে উঠেছে। মানুষ অন্যান্য জায়গা ছেড়ে এখন এখানে আসছে সময় কাটাতে। এখানে নিরাপত্তাজনিত কোন সমস্যা নেই। পর্যটকরা  ইচ্ছামত ঘুরাঘুরি করতে পারে।

গোপাল চন্দ্র দে, ভোলা প্রতিনিধি।


ঢাকা, মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // উ জ এই লেখাটি ২০৭৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন