সর্বশেষ
শুক্রবার ৮ই ভাদ্র ১৪২৬ | ২৩ আগস্ট ২০১৯

শুভ মহালয়া আজ

সোমবার, অক্টোবর ৮, ২০১৮

13.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাঙালি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবের পুণ্যলগ্ন, শুভ মহালয়া আজ সোমবার। এ দিন থেকেই শুরু দেবীপক্ষের।

শ্রীশ্রী চন্ডীপাঠের মধ্যদিয়ে দেবী দুর্গার আবাহনই মহালয়া হিসেবে পরিচিত। আর এই চন্ডীতেই আছে দেবী দুর্গার সৃষ্টির বর্ণনা এবং দেবীর প্রশস্তি। শারদীয় দুর্গাপূজার একটি গুরুত্বপর্ণ অনুষঙ্গ হলো এই মহালয়া।

রাজধানীর বিভিন্ন মন্দিরে মহালয়া উপলক্ষে মা দূর্গাকে বরণেও ছিল নানা আয়োজন। ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে দেশ এবং জাতির শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা ছিল সকলের।

পুরাণ মতে, শিবের বর অনুযায়ী কোনো মানুষ বা দেবতা কখনো মহিষাসুরকে বধ করতে পারবে না। আর সেই দাম্ভিকতায় মহিষাসুর দেবতাদের স্বর্গ থেকে বিতাড়িত করে এই বিশ্বব্রহ্মান্ডের অধীশ্বর হতে চায়। তখনই দেবতাদের মিলিত শক্তিতে সৃষ্টি হয় দশভুজা দেবী দূর্গার। অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত দেবী অসীম শক্তিতে পরাজিত করেন মহিষাসুরকে। সে অনুযায়ী এ দিনটিই মহালয়া।

এদিন থেকেই শুরু হলো শুভ্র বসনা মা দূর্গার আগমনের ক্ষণ গণনা অর্থাৎ দেবীপক্ষের শুভ সুচনা।  গুলশান বনানী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বনানী মাঠে ছিল শুভ মহালয়ার আয়োজন। ভোরে শ্রী শ্রী চন্ডীপাঠ, শঙ্খ আর উলুধ্বনির মধ্য দিয়ে বরণ করা হয় দেবীর আগমনী ক্ষনকে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবের পুণ্যলগ্ন এটি। এর মাধ্যমেই সমাজের সকল কুপমন্ডকতা দূর হোক সে কামনা ছিল পুর্নার্থীদের। রমনা কালি মন্দিরেও মহালয়া উপলক্ষে দেবী দূর্গার আগমনী আয়োজন ছিল ভক্তদের।

মহালয়া মানেই আর ছয় দিনের প্রতীক্ষা মায়ের পূজার। আগামী ১৫ আক্টোবর ষষ্ঠী পূজার মধ্যদিয়ে শুরু হবে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মুল আয়োজন দূর্গাপূজা।


ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ৮, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৪৪২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন