সর্বশেষ
শনিবার ১লা পৌষ ১৪২৫ | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

সুন্দরবনে ঝড়ে নিখোঁজ ১৫ বাংলাদেশী জেলেকে হস্তান্তর করেছে ভারত

মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৮

Benapole.jpg
বেনাপোল প্রতিনিধি :

পটুয়াখালি সুন্দরবন এলাকায় মাছ ধরতে যেয়ে সমুদ্রে ঝড়ের কবলে নিখোঁজ হওয়া বাংলাদেশী ১৫ জেলেকে দীর্ঘ ৫৪ দিন পর বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে হস্তান্তর করেছে বিএসএফ সদস্যরা।

পটুয়াখালি সুন্দরবন এলাকার গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে ঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলারসহ নিখোঁজ হওয়া ১৫ জেলে দীর্ঘ ৫৪ দিন পর ভারত থেকে দেশে ফিরেছে। ভারতের বনগাঁ পেট্টাপোল সীমান্তের বিএসএফ সদস্যরা ১৫ বাংলাদেশী জেলেকে মঙ্গলবার দুপুর ১টার সময় বেনাপোল চেকপোস্ট আইসিপি বিজিবি'র কাছে হস্তান্তর করেন। ফেরত আসা জেলেরা সুন্দরবন মহিপুর বাড়ী এলাকার অধিবাসী। তবে নিখোঁজ হওয়া সামসুর জামানের সন্ধান মেলেনি আজও। বেঁচে আছে কি মরে গেছে বলতে পারেনি সহকর্মীরা সহ স্বজনেরা।

বেনাপোল আইসিপি বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েব সুবেদার কাশেম আলী জানান, ১৯শে সেপ্টেম্বর পটুয়াখালি মহিতপুর বাড়ী এলাকায় গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যায় ঐ এলাকার রহমত উল্লাহ, কালগাজি, আব্দুস সালাম, নিজাম ও সামসুর জামানসহ ১৬ জেলে। ঝড়ের কবলে পড়ে নিখোঁজ হয় তারা। দীর্ঘ ১৯ ঘণ্টা পর ভারতের গবর্ধন থানা এলাকার সুন্দরবন পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে নিরাপদ হেফাজতে নেয়। পরে নীলডুমুর সেক্টর বিজিবির পক্ষে ভারতীয় কর্তৃপক্ষের কাছে তাদেরকে হস্তান্তরের আবেদন জানান।

দু'দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ৫৪দিন পর দেশে ফেরে তারা। এসময় আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকার সম্পাদক মহাসীন হোসেন বাবলুসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ভারতের পেট্টাপোল ক্যাম্পের বিএসএফ কমান্ডার অশোক কুমার তাদেরকে যশোর-৪৯ বিজিবির আইসিপি ক্যাম্প কমান্ডার আমজাদ হোসেনের কাছে হস্তান্তর করেন।

পরে তাদেরকে পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়। থানা পুলিশ জিডি করে স্ব-স্ব পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে বলে জানান পোর্ট থানার ওসি আবু সালেহ মাসুদ করিম।

ফেরত আসা মাঝি মুনসুর আলীর ছেলে রহমত উল্লাহ জানান, তাদের নিখোঁজ হওয়ার করুন কাহিনী। সীমান্ত এলাকায় ৫৪দিন পর তাদেরকে পেয়ে স্বজনদের মধ্যে আনন্দ অশ্রুতে এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।


ঢাকা, মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // উ জ এই লেখাটি ৮২৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন