সর্বশেষ
শুক্রবার ৩০শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

নির্বাচনে যেতে খালেদার সাজার বিরুদ্ধে আপিলের সিদ্ধান্ত

বুধবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৮

8.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিশ্চিত করতে আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছে বিএনপি।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সিনিয়র নেতারা এ বিষয়ে আইনজীবীদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

বৈঠকে জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে দেয়া সাজার বিরুদ্ধে আপিল এবং জামিন চাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বৈঠক সূত্রে জানা যায়, খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি আইনিভাবে মোকাবেলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী একাদশ নির্বাচনে দলের এ প্রধান যেন অংশ নিতে পারেন সে লক্ষ্যেই এই আইনি সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বিএনপি চেয়ারপার্সনের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, 'জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সনকে মোট ১৭ বছরের সাজা দেয় পৃথক আদালত। যার ফলে তার নির্বাচনে অংশগ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।'

তিনি আরো বলেন, 'তাই সেই সাজার বিরুদ্ধে আমরা আইনগত দিক নিয়ে আলোচনা করেছি। বৈঠকে সাজার বিরুদ্ধে আপিল ও জামিন চাওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। তাছাড়া ম্যাডামের বিরুদ্ধে থাকা অন্যান্য মামলার বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। আসলে এটি আমাদের নিয়মিত দায়িত্ব, সেটাই পালন করছি।'

আগামী নির্বাচনে খালেদা জিয়া যেন অংশগ্রহণ করতে পারেন সেই লক্ষ্যেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

বৈঠকে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, জমির উদ্দিন সরকার, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন, জয়নুল আবেদীন, এজে মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম মহাসচিব এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আহমেদ তালুকদার প্রমুখ।


ঢাকা, বুধবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৮৬২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন