সর্বশেষ
শনিবার ১লা পৌষ ১৪২৫ | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

টাঙ্গাইলের ৮টি আসনে বিএনপি'র মনোনয়নপত্র কিনলেন ৫০ প্রার্থী

শনিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৮

18.jpg
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জন্য টাঙ্গাইলে বিএনপির মনোনয়নপত্র কিনেছেন অন্তত ৫০ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী।

গত সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত উৎসব মুখর পরিবেশে ঢাকায় তারা এই মনোনয়নপত্র কিনেন। এ সময় তাদের সাথে নির্বাচনী এলাকার সমর্থিত নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি'র কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম পিন্টুর পক্ষে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়াও সালাম পিন্টুর ছোট ভাই যুবদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর পক্ষেও দলীয় মনোনয়ন নেয়া হয়েছে। তিনি বর্তমানে একটি মামলায় কারাগারে রয়েছেন। আব্দুস সালাম পিন্টু ও সুলতান সালাউদ্দিনের পক্ষে তাদের ভাই জেলা বিএনপি’র সভাপতি শামছুল আলম তোফা এই মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।

আব্দুস সালাম পিন্টু ১৯৯১ ও ২০০১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টাঙ্গাইল-২ আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন। ২০০১ সালে জোট সরকারের উপমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে ২০০৮ সালের জানুয়ারিতে তিনি গ্রেপ্তার হন। তারপর থেকে কারাগারে আছেন। চলতি বছরের অক্টোবর মাসে এই মামলায় তার মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন আদালত।

টাঙ্গাইল-১ (মধুপুর-ধনবাড়ী): এ আসন থেকে ৫ জন মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এরা হলেন- বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপি’র সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফকির মাহবুব আনাম স্বপন, মধুপুর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি জাকির হোসেন সরকার, মধুপুর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক সরকার শহীদুল ইসলাম, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ আলী, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ।

টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর): এ আসন থেকে বিএনপি'র ৮ জন মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এরা হলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামী কেন্দ্রীয় বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম পিন্টু, অপর দুই ভাই যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন ও টাঙ্গাইল জেলা বিএনপি’র সভাপতি কৃষিবিদ শামসুল আলম তোফা, বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপি’র সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফকির মাহবুব আনাম স্বপন, ভূঞাপুর উপজেলার বিএনপি’র সাবেক সভাপতি এডভোকেট আব্দুল খালেক মন্ডল, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা মো. আলম, স্বেচ্ছাসেবক দল টাঙ্গাইল জেলা কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম।

টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল): এ আসন থেকে বিএনপি’র ৩ জন মনোনয়ন পত্র কিনেছেন। এ আসন থেকে দলের ভাইস-চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী লুৎফর রহমান খান ও জেলা বিএনপির কোষাধ্যক্ষ মাঈনুল ইসলাম ও এসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব) এর যুগ্ম-মহাসচিব, প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ আবু হোসেন হিটলু।

টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী): এ আসন থেকে বিএনপি’র ৫ জন মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এরা হলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র নির্বাহী কমিটির সদস্য লুৎফর রহমান মতিন, উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক শুকুর মাহমুদ, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক বেনজীর আহম্মেদ টিটো, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ-সভাপতি আব্দুল হালিম এবং মালয়েশিয়া বিএনপি’র সভাপতি প্রকৌশলী বাদলুর রহমান বাদল।

টাঙ্গাইল-৫ (সদর) : এ আসন থেকে বিএনপি’র ৭ জন মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এরা হলেন, দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবেক মন্ত্রী মাহমুদুল হাসান, যুবদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন, টাঙ্গাইল জেলা টাঙ্গাইল জেলা বিএনপি’র সভাপতি কৃষিবিদ শামসুল আলম তোফা, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ ইকবাল, সহ-সভাপতি ছাইদুল হক, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-ক্রীড়া সম্পাদক আরিফুল হক প্রিন্স ও নির্বাহী সদস্য খন্দকার আহসান হাবিব।

টাঙ্গাইল-৬ (নাগরপুর-দেলদুয়ার): এ আসন থেকে বিএনপি’র ১০ জন মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এরা হলেন, সাবেক প্রতিমন্ত্রী গৌতম চক্রবর্তী, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য নুর মোহাম্মদ খান, ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা রবিউল আওয়াল, জেলা বিএনপি’র সাবেক নির্বাহী সদস্য শরিফুল ইসলাম স্বপন, নাগরপুর উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহবায়ক এডভোকেট ইকবাল হোসেন, বিএনপি’র নেতা ব্যারিস্টার শাহাদাত খান, এডভোকেট মো. রাহাত, নাগরপুর উপজেলা বিএনপি’র নেতা রফিক উদ্দিন খান আরজু, এডভোকেট আলমগীর হোসেন, এডভোকেট নারগিস সুলতানা রেবেকা।

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর): এ আসন থেকে বিএনপি’র মনোনয়নপত্র কিনেছেন ৫ জন। এরা হলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির শিশু বিষয়ক সম্পাদক, মির্জাপুর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক এমপি (নাশকতা মামলায় সম্প্রতি কারাবন্দি) আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহসীন হল ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস সাঈদ সোহরাব, টাঙ্গাইল জেলা বিএনপি নেতা ও জেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি ফিরোজ হায়দার খান, টাঙ্গাইল জেলা বিএনপি’র সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মির্জাপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি শিল্পপতি একে এম আজাদ স্বাধীন এবং জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাদেক আহদে খান।

টাঙ্গাইল-৮ (সখীপুর-বাসাইল): এ আসন থেকে বিএনপি’র মনোনয়নপত্র কিনেছেন ৭ জন। এরা হলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আযম খান, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র নির্বাহী সদস্য ওবায়দুল হক নাসির, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক শেখ মোহাম্মদ শফি শাওন, সখীপুর উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি শেখ মোহাম্মদ হাবিব, বাসাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী শহীদুল ইসলাম, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি জিয়াউল হক শাহিন এবং বিএনপি নেতা এডভোকেট ডা. রফিকুল ইসলাম মেহেদী।

টাঙ্গাইল থেকে,

মুুক্তার হাসান


ঢাকা, শনিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৩৬৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন